kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিশ্বজুড়ে মন্দার আশঙ্কা

পঞ্চম দফায় সুদহার বাড়াল যুক্তরাষ্ট্র

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পঞ্চম দফায় সুদহার বাড়াল যুক্তরাষ্ট্র

চার দশকে সর্বোচ্চ হওয়া মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে একের পর এক নীতি সুদহার বাড়িয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ। আর তাতে বিশ্বজুড়ে মন্দার উদ্বেগ আরো বাড়ছে বলে জানান সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

গত বুধবার এক ধাক্কায় শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশীয় পয়েন্ট হারে সুদহার বৃদ্ধি করেছে ফেডারেল রিজার্ভ। এ নিয়ে চলতি বছর মোট পাঁচবার নীতি সুদহার বাড়াল বিশ্বের শীর্ষ অর্থনৈতিক দেশটি।

বিজ্ঞাপন

ফেডারেল রিজার্ভ যে ব্যবস্থা নিয়েছে, সেটিকে এভাবে ব্যাখ্যা করা যায়—মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে যা যা করা দরকার সবই করা হবে, তাতে মন্দা দেখা দিলেও কিছু যায় আসে না।

ফেডারেল রিজার্ভের চেয়ারম্যান জেরোম পাওয়েল নীতি সুদহার বৃদ্ধির ঘোষণায় বলেন, ‘মূল্যস্ফীতির রাশ টানতে হবে আমাদের। তবে আমরা যদি নির্বিঘ্নে এ কাজ করতে পারতাম, তাহলে ভালো হতো। কিন্তু বির্বিঘ্নে করার জো নেই। ’

ফেডারেল রিজার্ভের নীতি সুদহারের লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ৩ থেকে ৩.২৫ শতাংশ। তবে এখন তারা বলছে, চলতি বছর তা ৪ শতাংশ অতিক্রম করে যেতে পারে।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বারবার সুদের হার বৃদ্ধির প্রবণতা প্রমাণ করছে, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ যুদ্ধ চলতেই থাকবে। আরো কঠোর হবে মুদ্রানীতি, যা মন্দা অনিবার্য করে তুলবে।

বারবার সুদের হার বৃদ্ধির ফলে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসা-বাণিজ্য ক্ষতিগ্রস্ত হবে। অর্থনৈতিক গতি ধীর হবে ও বেকারত্বের সংখ্যা বাড়বে। তবে এত বড় হারে সুদ বৃদ্ধিকে অপ্রত্যাশিত বলছে না আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। জেপি মরগ্যান, গোল্ডম্যান স্যাকসসহ বড় বড় আর্থিক প্রতিষ্ঠান বলছে, সুদের হার ৭৫ বেসিস পয়েন্ট বা একের তিন-চতুর্থাংশ বাড়ানো হবে এটা ধারণা করা হয়েছিল।

এ সপ্তাহেই বিশ্বব্যাংক বলল, মূল্যস্ফীতি মোকাবেলায় বিশ্বের কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো যেভাবে নীতি সুদহার বৃদ্ধি করছে, তাতে আগামী বছর বিশ্বে মন্দার আশঙ্কা আছে। সেই পূর্বাভাসের রেশ কাটতে না কাটতেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ আবারও নীতি সুদহার বাড়াল। এমনকি সামনে আরো বাড়ানো হবে বলেও ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে।



সাতদিনের সেরা