kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩০ সফর ১৪৪৪

শতভাগ এলসি মার্জিন

চাল খালাস করছেন না আমদানিকারকরা

হিলি প্রতিনিধি   

১৯ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাল খালাস করছেন না আমদানিকারকরা

ব্যাংকগুলোতে এলসির মার্জিন শতভাগ করায় লোকসানের আশঙ্কায় আমদানিকৃত চাল পোর্ট অভ্যন্তর থেকে খালাস করছেন না চাল আমদানিকারকরা। ব্যাংকের মার্জিন রেট ও শুল্ক কমানো হলে কিছুটা লোকসান কাটিয়ে আমদানিকৃত চালগুলো বাজারজাত করা যাবে বলে জানান তাঁরা।

হিলি কাস্টমের তথ্য মতে, বন্দরে এখনো শতাধিক ট্রাক খালাসের অপেক্ষায় রয়েছে। গত ২৩ জুলাই  থেকে ভারতীয় ২২৫টি ট্রাকে ৯ হাজার ২৫ মেট্রিক টন চাল আমদানি হয়েছে এই বন্দর দিয়ে, যা থেকে সরকার পেয়েছে প্রায় সাত কোটি টাকা রাজস্ব।

বিজ্ঞাপন

পোর্ট থেকে চাল ধীরগতিতে খালাস হওয়ায় বাজারে দিন দিন বাড়ছে চালের দাম।

গত ২৩ জুলাই হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে চাল আমদানি শুরু হয়। আমদানি শুরু হলেও ডলারসংকট ও ভারতে চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় চালের আমদানি ধীরগতিতে চলে আসে। তবে সম্প্রতি এই বন্দর দিয়ে চালের আমদানি বেড়েছে। আমদানির শুরুতেই প্রতিদিন পাঁচ থেকে ছয়টি ট্রাক এই বন্দরে প্রবেশ করলেও বর্তমানে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ থেকে ৩০টিতে। তবে আমদানি বাড়লেও বন্দর থেকে চাল খালাস করছেন না আমদানিকারকরা।

হিলি পোর্টের গণসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাফ হোসেন মল্লিক প্রতাব জানান, এই বন্দর দিয়ে চালের আমদানি বেড়েছে। আমদানিকৃত চাল দ্রুত খালাসে সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে হিলি পানামা পোর্ট কর্তৃপক্ষ। আমদানিকারকদের কারণেই আটকা পড়ে আছে শতাধিক চালবোঝাই ট্রাক।



সাতদিনের সেরা