kalerkantho

শুক্রবার । ৭ অক্টোবর ২০২২ । ২২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ব্লুটুথ ও এয়ার প্লাজমা প্রযুক্তির কনভার্টার এসি আনল ওয়ালটন

দেড় থেকে পৌনে এক টনে রূপান্তর সুবিধা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্লুটুথ ও এয়ার প্লাজমা প্রযুক্তির থ্রি ইন ওয়ান কনভার্টার এয়ারকন্ডিশনার তৈরি করেছে ওয়ালটন। বিশ্বে ওয়ালটনই প্রথম এমন প্রযুক্তিসংবলিত এসি বলে দাবি করেছে দেশি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি। ক্রিস্টালাইন প্রিটো সিরিজের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির এই এসি গ্রাহকের রুমের আয়তন অনুযায়ী দেড় টন থেকে এক টন এবং পৌনে এক টনে রূপান্তর সুবিধা আছে। ব্যাপক বিদ্যুৎসাশ্রয়ী কালো রঙের এসিটি রিমোটের পাশাপাশি বু্লটুথের মাধ্যমে স্মার্টফোন দিয়ে নিয়ন্ত্রণ বা পরিচালনা করতে পারবেন গ্রাহক।

বিজ্ঞাপন

বাতাসে বিদ্যমান ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস ধ্বংস করতে এতে ব্যবহার করা হয়েছে এয়ার প্লাজমা প্রযুক্তি।

রাজধানীর ওয়ালটন করপোরেট অফিসে গতকাল রবিবার এই এসি উন্মোচন করেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসির ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও গোলাম মুর্শেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর নজরুল ইসলাম সরকার, এমদাদুল হক সরকার, ইভা রিজওয়ানা নিলু, হুমায়ূন কবীর, ওয়ালটন প্লাজা ট্রেডসের সিইও মোহাম্মদ রায়হান প্রমুখ।

ওয়ালটন এসি রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশনের প্রধান আরিফুল ইসলাম জানান, ক্রিস্টালাইন প্রিটো সিরিজের এই এসিতে রয়েছে থ্রি ইন ওয়ান কনভার্টার টেকনোলজি। অর্থাৎ ১.৫ টন বা ১৮ হাজার বিটিইউ পার আওয়ারের এই এসি প্রয়োজনমতো রুম সাইজ অনুসারে রিমোট বা স্মার্টফোনের সাহায্যে রূপান্তর করা যায়। এ ক্ষেত্রে প্রচলিত এক টন এসির তুলনায় ওয়ালটনের কনভার্টেড এক টন এসিতে ২০.১৮ শতাংশ বেশি বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়। আর প্রচলিত পৌনে এক টন এসির তুলনায় ওয়ালটনের কনভার্টেড পৌনে এক টন এসিতে বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয় ৩০.৫৩ শতাংশ।

ওয়ালটন এসির সিবিও তানভীর রহমান বলেন, ‘বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সর্বোচ্চ বিদ্যুৎসাশ্রয়ী এসি উৎপাদনে দক্ষ ও মেধাবী প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে ওয়ালটনের রয়েছে শক্তিশালী রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশন টিম। তাদের নিয়মিত গবেষণা ও প্রযুক্তিগত উন্নয়নের ফলে ওয়ালটন এসিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন উদ্ভাবন। সম্প্রতি আমরা ৫.৫ স্টার রেটিংয়ের উপমহাদেশের সর্বোচ্চ বিদ্যুৎসাশ্রয়ী এসি বাজারে ছেড়েছি। ’



সাতদিনের সেরা