kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

অটোমোবাইল শিল্পের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অটোমোবাইল শিল্পের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী শুরু

বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে অনুষ্ঠিত তিন দিনব্যাপী ঢাকা মোটর শোতে বাজাজের সব মডেলের মোটরসাইকেল নিয়ে এসেছে উত্তরা মোটরস। ছবি : কালের কণ্ঠ

সেমস-গ্লোবাল ইউএসএর আয়োজনে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) শুরু হয়েছে ‘১৫তম ঢাকা মোটর শো’। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান এ এইচ এম আহসান, ফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান এক্সপোর্ট অর্গানাইজেশনের (এফআইইও) সহসভাপতি খালিদ খান, সুজুকি মোটরবাইকস লিমিটেডের বিভাগীয় প্রধান শোয়েব আহমেদ, হুমায়ুন রাশিদ, ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সেমস গ্লোবালের প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড গ্রুপ ম্যানেজিং ডিরেক্টর মেহেরুন এন ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, মোটরপ্রেমীদের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় এই প্রদর্শনী দুই বছর পর আবার ফিরে আসছে ব্র্যান্ডনিউ গাড়ি, বাইকসহ অটোমোটিভ জগতের বিপুল সমারোহ নিয়ে। ঢাকা মোটর শো চলাকালে অনুষ্ঠিত হবে ষষ্ঠ ঢাকা বাইক শো, পঞ্চম ঢাকা অটোপার্টস শো এবং চতুর্থ ঢাকা কমার্শিয়াল অটোমোটিভ শো। দেশের অটোমোটিভ শিল্পের একমাত্র আন্তর্জাতিক এই প্রদর্শনীতে জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, চীন, ভারত, মালয়েশিয়াসহ আরো ১৫টি দেশের বিভিন্ন ব্র্যান্ড ২৮৭টি প্রদর্শক, ৫৩০টি বুথের মাধ্যমে অংশ নিচ্ছে। প্রদর্শনীতে থাকছে ইউরোপিয়ান ব্র্যান্ডের মাসারাতি, পোরশে, ডিফেন্ডার, হুন্দাই, জিপ বাংলাদেশের র?্যাংগলার, পিএইচপি অটোমোবাইল, মিত্সুবিশি, হোন্ডা, এইচ অটোস, টয়োটা ইত্যাদি ব্র্যান্ডের গাড়ি ও বাইক। দর্শনার্থীদের জন্য মোটরবাইক কম্পানিগুলো অনেক নতুন মডেল নিয়ে উপস্থিত থাকবে। তিন দিনের এই প্রদর্শনী চলবে ২৫ জুন পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের মোটর ও অটোমোটিভ শিল্পের বিকাশে এই প্রদর্শনী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এ ধরনের ইতিবাচক পদক্ষেপের ফলে বিশ্ববাজারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি যেমন উজ্জ্বল হবে, পাশাপাশি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থার সংকট দূর হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

মেহেরুন এন ইসলাম বলেন, ‘কভিড-১৯ মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে ঢাকা মোটর শো আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। এই মহামারির কারণে সারা বিশ্বের ইভেন্ট ও এক্সিবিশন সেক্টর ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এবার মহামারির প্রাদুর্ভাব কমে যাওয়ায় আমাদের প্রতিষ্ঠান সেমস-গ্লোবাল ইউএসএ বড় পরিসরে ঢাকা মোটর শো আয়োজন করেছে। ষষ্ঠ ঢাকা মোটর শোর প্লাটিনাম স্পন্সর সুজুকি। এনার্জি প্যাক চতুর্থ ঢাকা কমার্শিয়াল অটোমোটিভ শোর প্লাটিনাম স্পন্সর। নিটল মোটরস লিমিটেড চতুর্থ ঢাকা কমার্শিয়াল অটোমোটিভ শোর গোল্ড স্পন্সর।



সাতদিনের সেরা