kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

পদ্মা সেতুতে দেশি কম্পানি ৩

পদ্মা সেতুতে প্রথম রড সরবরাহ করেছে কেএসআরএম

সেতু নির্মাণ কর্তৃপক্ষ রড উৎপাদনের কাঁচামাল সংগ্রহ থেকে উৎপাদন প্রক্রিয়ার প্রতিটি ক্ষেত্রে যাচাই-বাছাই করেছে -শাহরিয়ার জাহান রাহাত, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর, কেএসআরএম গ্রুপ

আসিফ সিদ্দিকী, চট্টগ্রাম   

২৪ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পদ্মা সেতুতে প্রথম রড সরবরাহ করেছে কেএসআরএম

পদ্মা সেতু নির্মাণে এক লাখ টন রড ব্যবহৃত হয়েছে। প্রথম সরবরাহকারী কেএসআরএম। ছবি : কালের কণ্ঠ

মাত্র দুটি দেশীয় কম্পানির রড ব্যবহার করেই নির্মিত হয়েছে পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো। প্রতিষ্ঠান দুটি হলো বিএসআরএম এবং কেএসআরএম। মূল পদ্মা সেতুতে মোট এক লাখ টন রড ব্যবহার করা হয়েছে। সেখানে কেএসআরএমই সর্বপ্রথম রড সরবরাহ দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তাদের রড দিয়েই প্রথমে কাজটি শুরু হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়। পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের শর্তহীন রড সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানও কেএসআরএম। শর্তহীন মানে হচ্ছে, পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ যে গুণগত মানের রড চেয়েছে, সেটিই সরবরাহ করেছে, যা পরে মান পরীক্ষায় কোনো বাধা ছাড়াই উত্তীর্ণ হয়েছে।  

কেএসআরএম গ্রুপের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর শাহরিয়ার জাহান রাহাত কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এটি নিঃসন্দেহে আমাদের জন্য গৌরবের। আমাদের জানা মতে, দেশের আরো অনেক ইস্পাত নির্মাণ প্রতিষ্ঠান গৌরবের পদ্মা সেতুতে রড সরবরাহের আগ্রহ দেখিয়েছে। এমন অহংকারের অংশীদার কে না হতে চায়! কিন্তু পদ্মা সেতু নির্মাণ কর্তৃপক্ষের শর্ত ও মান রক্ষা করতে পারেনি অনেক প্রতিষ্ঠান। সেতু নির্মাণ কর্তৃপক্ষ মান রক্ষার ক্ষেত্রে ছিল আপসহীন ও অনমনীয়। তারা উৎপাদন থেকে সরবরাহ পর্যন্ত প্রতিটি ধাপে আন্তর্জাতিক মান রক্ষা করেছে। যাচাই-বাছাই করা হয়েছে রড উৎপাদনের কাঁচামাল সংগ্রহ থেকে উৎপাদনপ্রক্রিয়ার প্রতিটি ক্ষেত্রে। সরবরাহকারী হিসেবে এসব ধাপ অতিক্রম করতে হয়েছে কেএসআরএমকে। মান রক্ষার সব ধাপে উত্তীর্ণ হতে হয়েছে কোনো ব্যাখ্যা ছাড়াই। এরপর পদ্মা সেতুতে রড সরবরাহে একমাত্র শর্তহীন অনুমোদন পেয়েছে কেএসআরএম। ’

শাহরিয়ার জাহান রাহাত বলেন, ‘এসবের মূল কারণ হলো মান নিয়ন্ত্রণে আমাদের আপসহীনতা। কেএসআরএম যেকোনো প্রতিকূলতায় বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে আন্তর্জাতিক মানদণ্ড রক্ষা করেই রড তৈরি করে। পদ্মা সেতুতে সর্বপ্রথম শর্তহীন রড সরবরাহের কার্যাদেশ আমাদের প্রতি গ্রাহকদের আস্থা ও বিশ্বাস আরো সুসংহত ও দৃঢ় করেছে। উদ্যোক্তা হিসেবে আমাদেরও আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। ’

রড সরবরাহের আগে কেএসআরএম কারখানায় উৎপাদনের প্রতিটি ধাপ সরেজমিনে দেখেছেন বিশেষজ্ঞরা। কাঁচামালের মানও পরীক্ষা করেছে ওই বিশেষজ্ঞদল। সর্বশেষ তাদের শর্ত অনুযায়ী রড উৎপাদন হয়েছে কি না, তা-ও যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। সব ধাপেই কেএসআরএম রডের মান রক্ষায় সমর্থ হয়েছে। দেশের সবচেয়ে বড় প্রকল্পে কেএসআরএমের রড সরবরাহ অনেক বড় অর্জন, যোগ করেন শাহরিয়ার জাহান রাহাত।



সাতদিনের সেরা