kalerkantho

রবিবার । ৩ জুলাই ২০২২ । ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ । ৩ জিলহজ ১৪৪৩

চাল রপ্তানি বন্ধের পরিকল্পনা ভারতের নেই

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৭ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কোনো পরিকল্পনা ভারত সরকারের নেই। কিংবা সরবরাহ সীমিত করারও কোনো পরিকল্পনা নেওয়া হয়নি বলে সরকারের সংশ্লিষ্ট দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন।

ভারত নন-বাসমতী চাল রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে—এমন গুজব বিশ্ববাজারে ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এ মন্তব্য করেন। এর আগে ভারত গম রপ্তানি নিষিদ্ধ করে এবং চিনি রপ্তানিতে সীমাবদ্ধতা আরোপ করে।

বিজ্ঞাপন

এমন পরিপ্রেক্ষিতেই মূলত চাল রপ্তানি বন্ধের আশঙ্কা নিয়ে কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রতিবেদন উঠে আসে।

ভারতীয় দৈনিক ইকোনমিক টাইমস বলছে, ‘সরকার দেশের বাজারে সরবরাহ নিশ্চিত এবং মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে চাল রপ্তানি সীমিত করার কথা বিবেচনা করতে পারে। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নেতৃত্বে গঠিত একটি কমিটি বাসমতী ছাড়া অন্যান্য জাতের চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের উৎপাদন বিশ্লেষণ করছে। মূল্যবৃদ্ধির কোনো লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। ’ তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভারত সরকারের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘চাল রপ্তানি বন্ধের কোনো পরিকল্পনা আমাদের নেই। এমনকি কোনো সীমাবদ্ধতা আরোপের চিন্তাও করছি না। ’ বিষয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আরেক কর্মকর্তাও বলেন, ‘চাল রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্ত এখনো পর্যন্ত নেওয়া হয়নি। ’ প্রথম কর্মকর্তা আরো জানান, গত অর্থবছরে ভারত বাসমতীসহ ২১.১ মিলিয়ন টন চাল রপ্তানি করেছে। এর পরও পর্যাপ্ত মজুদ আছে। এর পাশাপাশি নতুন মৌসুমেও রেকর্ড পরিমাণ উৎপাদন হচ্ছে। চীনের পর বিশ্বে চালের দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎপাদনকারী ভারত এবং ২০২১-২২ অর্থবছরে বিশ্বের ১৫০টিরও বেশি দেশে চাল রপ্তানি করেছে। বিশ্বের অনেক অংশের মানুষের অন্যতম প্রধান খাদ্যশস্য চাল, যা বিশ্ব খাদ্যসংকট পরিস্থিতিকে আরো খারাপ হওয়া থেকে রক্ষায় সাহায্য করছে। সূত্র : বিজনেস লাইন, জিনিউজ



সাতদিনের সেরা