kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ২৪ মে ২০২২ । ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২২ শাওয়াল ১৪৪৩  

অর্থপাচার ঠেকাতে কাস্টমসকে জোরালো ভূমিকা রাখতে হবে

কৃষিমন্ত্রী বললেন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদেশে অর্থপাচার রোধে কাস্টমসকে আরো জোরালো ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেছেন, প্রতিবছর দেশ থেকে বিপুল অঙ্কের টাকা বিদেশে পাচার হয়ে যাচ্ছে। ব্যবসায়ী, সরকারি কর্মকর্তাসহ বিপুলসংখ্যক মানুষ দুর্নীতি, কর ফাঁকি, কর জালিয়াতিসহ নানাভাবে বিদেশে টাকা পাচার করছে। এ পাচার রোধে কাস্টমসের কর্মকর্তাদের ন্যায়-নীতির ভিত্তিতে কাজ করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

যাতে কোনোক্রমেই কেউ বিদেশে টাকা পাচার  করতে না পারে। এ ক্ষেত্রে কাস্টমসের ডিজিটাইজেশন বিরাট ভূমিকা রাখতে পারবে।

গতকাল বুধবার ঢাকার একটি হোটেলে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবসের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মন্ত্রী আরো বলেন, ‘দেশের উন্নয়নের অর্থ আসে কর, ভ্যাট, কাস্টমস থেকে। একসময় দেশের বাজেট অনেকটা বিদেশি সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল ছিল। বাজেটের ১৫-২০ শতাংশ ছিল সাহায্যনির্ভর, এখন তা কমে মাত্র ২-৩ শতাংশে এসে দাঁড়িয়েছে। এটি সম্ভব হয়েছে কারণ অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে আমাদের আয় বেড়েছে। ’

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী ও ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেহজাদ মুনীম বক্তব্য দেন। সভাপতিত্ব করেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। এ বছর আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবসের প্রতিপাদ্য ‘তথ্য-সংস্কৃতি বিকাশ এবং তথ্য-ইকোসিস্টেম বিনির্মাণের মাধ্যমে ডিজিটাল কাস্টমসের সম্প্রসারণ’-এর ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়।

অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্যের ওপর আলোচনায় শেহজাদ মুনীম বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নপূরণের ক্ষেত্রে কাস্টমস একটি মুখ্য ভূমিকা পালন করছে। আঞ্চলিক পর্যায়ে বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য কাস্টমসের ‘গ্লোবাল নেটওয়ার্কড কাস্টমস’ (জিএনসি)-এ অন্তর্ভুক্তকরণের ওপর জোর দেন তিনি। কাস্টমসের আধুনিকায়নের জন্য বেসরকারি খাত সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবে এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।



সাতদিনের সেরা