kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ১৯ মে ২০২২ । ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩  

আগের বিধি-নিষেধ থাকছে না

বঙ্গবন্ধু মোংলা-ঘাষিয়াখালী ক্যানেলে রাতেও চলবে নৌযান

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২১ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাতেও বঙ্গবন্ধু মোংলা-ঘাষিয়াখালী ক্যানেল দিয়ে নৌযান চলাচলের অনুমতি দিয়েছে বিআইডাব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ। তাই এখন থেকে আর এই নৌ রুট দিয়ে রাতে নৌযান চলাচলের আগের বিধি-নিষেধ থাকছে না। ফলে বৃহস্পতিবার রাত থেকেই আন্তর্জাতিক এই ক্যানেল দিয়ে দিনের মতোই কার্গো, কোস্টার, ট্যাংকারসহ বিভিন্ন ধরনের নৌযান চলাচল করতে পারবে। দিনের মতো রাতেও সার্বক্ষণিক নির্বিঘ্নে নৌযান চলাচলের জন্য নাইট নেভিগেশনের কাজ শুরু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিআইডাব্লিউটিএর উপসহকারী প্রকৌশলী (ড্রেজিং বিভাগ) মো. আনিসুজ্জামান রকি বলেন, ক্যানেলটি উন্মুক্ত করার পর থেকে শুধু দিনের বেলায়ই নৌযান চলাচল করত। রাতে এই নৌপথ দিয়ে নৌযান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ছিল। কিন্তু বিআইডাব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে রাতেও নৌযান চলাচলের নির্দেশনা দিয়েছে। রাতে নৌযান চলাচলের এই নির্দেশনা বৃহস্পতিবার বিকেলে আমার হাতে এসে পৌঁছেছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের এই নির্দেশনা পাওয়া মাত্রই তা কার্যকরে সংশ্লিষ্ট নৌ ক্যানেলের ড্রেজিংয়ের কাজে নিয়োজিত সব ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও ড্রেজার মালিকদের অবহিত করা হয়েছে, রাতে নৌযান চলাচল উপযোগী রাখার জন্য যাতে তাঁরা তাঁদের ড্রেজারের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেন। নৌযান চলাচল নির্বিঘ্ন ও দুর্ঘটনার ঝুঁকি এড়াতে ড্রেজারগুলোতে পর্যাপ্ত লাইট, রেড মার্কা ও বয়া স্থাপন করতে বলা হয়েছে। ’ তিনি আরো বলেন, ক্যানেলটিতে নাইট নেভিগেশনের কাজও শুরু করেছে বিআইডাব্লিউটিএর নেভিগেশন বিভাগ।

নাব্যতা সংকটের কারণে ক্যানলেটিতে ২০১০ থেকে ২০১৫ সাল র্পযন্ত নৌযান চলাচল বন্ধ থাকে, যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে মোংলা বন্দরের ওপর। কারণ মোংলা বন্দরে আসা বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের পণ্য দেশের বিভিন্ন স্থানে এই নদীপথে আনা-নেওয়া হয়ে থাকে। ফলে মোংলা বন্দর সচল রাখার স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসনাি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ২০১৫ সালে ক্যানলেটি সচলের জন্য বিআইডাব্লিউটিএকে নির্দেশনা দেন। সেই নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে বিআইডাব্লিউটিএ এই ক্যানেলে খননকাজ শুরু করে। এরপর ২০১৬ সালের ২৭ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই ক্যানলেটি উন্মুক্ত ঘোষণা করেন। সেই থেকে চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত পাঁচ বছরের বেশি সময় ধরে এই ক্যানেল দিয়ে শুধু দিনের বেলায় নৌযান চলাচল করে আসছিল।



সাতদিনের সেরা