kalerkantho

বুধবার । ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৮ ডিসেম্বর ২০২১। ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

চায়না টেলিকমের লাইসেন্স বাতিল করল যুক্তরাষ্ট্র

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৮ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্র-চীন বাণিজ্যযুদ্ধ যেন মাঝেমধ্যেই উত্তেজনায় রূপ নিচ্ছে। এবার জাতীয় নিরাপত্তার অজুহাতে চীনের অন্যতম বৃহৎ টেলিযোগাযোগ কম্পানি চায়না টেলিকমের লাইসেন্স বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী ৬০ দিনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে সব ধরনের সেবা প্রদান বন্ধ করতে হবে চায়না টেলিকমকে।

আমেরিকান কর্মকর্তারা বলছেন, এই কম্পানির ওপর চীন সরকারের নিয়ন্ত্রণের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের যোগাযোগ ব্যবস্থায় তাদের প্রবেশ, তথ্য মজুদ করা, বিঘ্ন সৃষ্টি করা বা যোগাযোগ ব্যাহত করার সুযোগ থেকে যায়। এর ফলে চীন ‘যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তি বা অন্য ক্ষতিকর কর্মকাণ্ড চালানোর’ সুযোগ পেতে পারে বলে তাঁরা আশঙ্কা করছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে গত প্রায় ২০ বছর ধরে টেলিযোগাযোগ সেবা দিয়ে আসা চায়না টেলিকম এই সিদ্ধান্তকে ‘হতাশাজনক’ বলে বর্ণনা করেছে। একটি বিবৃতিতে তারা বলেছে, ‘গ্রাহকসেবা নিশ্চিত করার জন্য আমরা সম্ভাব্য সব বিকল্প অনুসরণের পরিকল্পনা করছি।’

চীনের টেলিযোগাযোগ খাতে যে তিনটি কম্পানির প্রাধান্য রয়েছে, তাদের একটি চায়না টেলিকম। এই কম্পানিটি ১১০টি দেশে কোটি কোটি গ্রাহককে সেবা দিয়ে থাকে। ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট থেকে শুরু করে মোবাইল ও ল্যান্ডলাইন টেলিফোন নেটওয়ার্কে এই কম্পানি সেবা দেয়। এর আগে চীনা প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে এবং জেডটিইকেও টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য হুমকি হিসেবে বর্ণনা করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। তাই প্রতিষ্ঠান দুটির সেবা প্রদানও নিষিদ্ধ করা হয়। সূত্র : বিবিসি।



সাতদিনের সেরা