kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

সঞ্চয়পত্র বিক্রিতে ১০০ টাকায় ব্যাংক পাবে ৫ পয়সা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সঞ্চয়পত্র বিক্রির কমিশন ব্যাপক হারে কমাল সরকার। ব্যাংকগুলো আগে ১০০ টাকার সঞ্চয়পত্র বিক্রি করলে ৫০ পয়সা কমিশন পেত, এখন পাবে পাঁচ পয়সা। শুধু তা-ই নয়, একটি নিবন্ধনের বিপরীতে যত টাকার সঞ্চয়পত্রই বিক্রি করা হোক না কেন, ব্যাংকের প্রাপ্য কমিশন সর্বোচ্চ ৫০০ টাকার বেশি হবে না। গত ১৬ সেপ্টেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ (আইআরডি) সঞ্চয়পত্র বিক্রির নতুন এই কমিশন হার নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করে। এ বিষয়ে অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

এতে বলা হয়, সরকার অনলাইন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে পরিচালিত পাঁচটি সঞ্চয় স্কিম বিক্রয়ের ওপর কমিশনের হার পুনর্নির্ধারণ করেছে। এগুলো হলো—পাঁচ বছর মেয়াদি বাংলাদেশ সঞ্চয়পত্র, তিন মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক সঞ্চয়পত্র, পেনশনার সঞ্চয়পত্র, পরিবার সঞ্চয়পত্র ও ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক মেয়াদি হিসাব।

এর আগে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, ডাকঘর ও বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো এখন থেকে সঞ্চয়পত্র বিক্রিতে ০.০৫ শতাংশ হারে কমিশন পাবে। এ ছাড়া একটি নিবন্ধনের বিপরীতে যত টাকার সঞ্চয়পত্রই বিক্রি করা হোক না কেন, ব্যাংকের প্রাপ্য কমিশন সর্বোচ্চ ৫০০ টাকার বেশি হবে না।

বাংলাদেশ ব্যাংক, বাণিজ্যিক ব্যাংক, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর ও ডাকঘর সঞ্চয়পত্র বিক্রি করে থাকে। তবে সঞ্চয় অধিদপ্তর নিজস্ব এই আর্থিক পণ্য বিক্রির বিপরীতে কোনো কমিশন পায় না। কারণ, সঞ্চয়পত্র বিক্রি করাই তার কাজ। আর বাংলাদেশ ব্যাংক কোনো কমিশন নেয় না।



সাতদিনের সেরা