kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি

প্রথম স্থানে সোনালী ব্যাংক

গ্রাহকদের এখন ব্যাংকে আসতে হয় না। সোনালী ব্যাংক উদ্ভাবিত মোবাইল অ্যাপস ‘সোনালী ই-সেবার’ মাধ্যমে ঘরে বসেই এখন হিসাব খোলা যায়। এই অ্যাপসের মাধ্যমে প্রায় ৮০ হাজার অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে অতি অল্প সময়ে। -মো. আতাউর রহমান প্রধান, এমডি, সোনালী ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রথম স্থানে সোনালী ব্যাংক

সরকারের সঙ্গে সম্পাদিত বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে সরকারি সব ব্যাংকের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংক। রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক ক্যাটাগরিতে ব্যাংকটি ৯২.৮ নম্বর পেয়ে অতি উত্তম মানদণ্ডে প্রথম স্থান অর্জন করে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে সম্প্রতি এই অর্জনের জন্য ব্যাংকটিকে অভিনন্দনও জানানো হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সঙ্গে গত কয়েক বছর ধরে সরকারি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) হয়ে আসছে। ওই চুক্তির আওতায় ব্যবসার বিভিন্ন সূচকের টার্গেট নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। ২০২০-২১ অর্থবছরের একটি নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান ও ১৭টি ব্যাংক, বীমা ও অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের চুক্তি সম্পাদিত হয়েছিল।

এই অর্জনের সব কৃতিত্ব ব্যাংকের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উল্লেখ করে সোনালী ব্যাংকের এমডি মো. আতাউর রহমান প্রধান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সরকারের নির্দেশে সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা করোনার মধ্যেও দেশের অর্থনীতি সচল রাখার লক্ষ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন। তাঁরা এ সময় সম্মুখযোদ্ধার ভূমিকা পালন করেছেন।’ করোনার মধ্যেও এই অর্জনের পেছনে সোনালী ব্যাংকের আইটি খাতে যুগান্তকারী পদক্ষেপের কথাও তুলে ধরেন তিনি। আতাউর রহমান প্রধান বলেন, “গ্রাহকদের এখন ব্যাংকে আসতে হয় না। সোনালী ব্যাংক উদ্ভাবিত মোবাইল অ্যাপস ‘সোনালী ই-সেবার’ মাধ্যমে ঘরে বসেই এখন হিসাব খোলা যায়। এই অ্যাপসের মাধ্যমে প্রায় ৮০ হাজার অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে অতি অল্প সময়ের মধ্যেই। এ ছাড়া ‘ই-ওয়ালেট’ মোবাইল অ্যাপস ব্যবহার করে গ্রাহকরা এখন ঘরে বসেই ব্যাংকিং করতে পারছেন।” তিনি আরো বলেন, সরকারঘোষিত বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নে সোনালী ব্যাংক প্রায় শতভাগ সফল। এসব কারণেই সোনালী ব্যাংক শুধু আকারে নয়; সেবায়ও শীর্ষ অবস্থানে পৌঁছতে পেরেছে বলে মনে করেন এই ব্যাংকার।

২০২০ সালে সোনালী ব্যাংক দেশের ব্যাংকিং খাতে সর্বোচ্চ দুই হাজার ১৭৫ কোটি টাকা পরিচালন মুনাফা করতে সক্ষম হয়েছে।



সাতদিনের সেরা