kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বস্ত্র খাতে উৎপাদন ব্যাহত

দ্রুত জাতীয় গ্রিডে এলএনজি সরবরাহের দাবি বিটিএমএর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বস্ত্র খাতের কারখানাগুলোর উৎপাদন ঠিক রাখতে দ্রুত জাতীয় গ্রিডে এলএনজি সরবরাহ নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে এই খাতের সংগঠন বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএমএ)। সাম্প্রতিক সময়ে বস্ত্র খাতের কারখানাগুলোতে গ্যাসের তীব্র সংকট নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি মো. আলী খোকন এই দাবির কথা তুলে ধরেন। গতকাল মঙ্গলবার গুলশানের লেকশোর হোটেলে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংগঠনের সভাপতি মো. আলী খোকন।

তিনি বলেন, ‘পর্যাপ্ত গ্যাস সরবরাহের অভাবে দেশের বস্ত্র খাতের মিলগুলো সাম্প্রতিক সময়ে ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশ উৎপাদন সক্ষমতা নিয়ে কাজ করছে। প্রায় ৬০ শতাংশ সক্ষমতা হারিয়েছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে দেশের বেশির ভাগ রপ্তানি আয়ের তৈরি পোশাক খাতে বড় ধরনের সংকট তৈরি হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, এই অবস্থায় দ্রুত জাতীয় গ্রিডে এলএনজি (লিক্যুফায়েড ন্যাচারাল গ্যাস) সরবরাহ নিশ্চিত করে বস্ত্র খাতের কারখানায় গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

সরকারের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে কোনো প্রতিকার না পেয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করতে আমরা বাধ্য হয়েছি, এমন অভিযোগ জানিয়ে সংগঠনের সভাপতি বলেন, তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ চাইলেই এই সংকটে সমাধান করতে পারে, কিন্তু দেশের অর্থনীতি বড় অংশীদার এই খাতের ওপর চরম অবহেলা অর্থনীতিতে বড় ধাক্কা আসবে। এতে কর্মসংস্থানেও বিপর্যয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

মো. আলী বলেন, ‘কৃষিতে এখন কোনো মৌসুম না হলেও বস্ত্র খাতের গ্যাস বন্ধ করে সরকার সার কারখানায় গ্যাস দিচ্ছে। ফলে গ্যাসের অভাবে কোনো কোনো কারখানায় উৎপাদন সক্ষমতা হারিয়েছে প্রায় ৭০ শতাংশ।’



সাতদিনের সেরা