kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

আংকটাডের প্রতিবেদন

পণ্য রপ্তানির ওপর নির্ভরশীল শতাধিক দেশ

গত এক দশকে ২০০৮-০৯ থেকে ২০১৮-১৯ সময়ে পণ্যদ্রব্য রপ্তানির ওপর নির্ভরশীল দেশের সংখ্যা ৯৩ থেকে বেড়ে হয়েছে ১০১টি

বাণিজ্য ডেস্ক   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পণ্য রপ্তানির ওপর নির্ভরশীল শতাধিক দেশ

বিশ্বজুড়ে পণ্যদ্রব্যের ওপর নির্ভরতা ব্যাপকভাবে বেড়েছে। ফলে পণ্যমূল্যের ব্যাপক ওঠানামায় দুই-তৃতীয়াংশ উন্নয়নশীল দেশ অর্থনৈতিক অভিঘাতের ঝুঁকিতে রয়েছে। গত বুধবার প্রকাশিত জাতিসংঘের বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থা আংকটাডের ‘স্টেট অব কমোডিটি ডিপেনডেন্স ২০২১’ প্রতিবেদনে বলা হয়, গত এক দশকে ২০০৮-০৯ থেকে ২০১৮-১৯ সময়ে পণ্যদ্রব্য রপ্তানির ওপর নির্ভরশীল দেশের সংখ্যা ৯৩ থেকে বেড়ে হয়েছে ১০১টি। প্রাথমিক কৃষিপণ্য বা কাঁচামালকে পণ্যদ্রব্য হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

বিশ্বে পণ্য রপ্তানির নামমাত্র মূল্য ২০১৮-১৯ সময়ে ৪.৩৮ ট্রিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে, যা ২০০৮-০৯ সময় থেকে ২০ শতাংশ বৃদ্ধি। আংকটাডের পণ্যদ্রব্যবিষয়ক প্রধান জানভিয়ার এনকুরুনজিজা বলেন, ‘পণ্যদ্রব্যের ওপর নির্ভলশীলতা দেশগুলোকে অর্থনীতির নেতিবাচক আঘাতের ক্ষেত্রে অনেক বেশি ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলেছে।’ আংকটাড একটি দেশকে পণ্য রপ্তানিনির্ভর তখনই মনে করে যখন তার রপ্তানির ৬০ শতাংশের বেশি পণ্যদ্রব্য হয়।

বলা হয়, পণ্যনির্ভরতায় বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় উন্নয়নশীল দেশগুলো। ২০১৮-১৯ সময়ের হিসাব অনুযায়ী তাদের ১০১ দেশের ৮৭টি পণ্যদ্রব্যনির্ভর দেশ। এর মধ্যে ৩৮ দেশ নির্ভর করছে কৃষিপণ্য রপ্তানির ওপর, ৩২ দেশ খনিপণ্য ও ৩১ দেশ জ্বালানি রপ্তানির ওপর।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আফ্রিকা ও ওশেনিয়া অঞ্চলে পণ্য রপ্তানিনির্ভরতা উল্লেখযোগ্য। উভয় অঞ্চলের তিন-চতুর্থাংশের বেশি দেশই পণ্য রপ্তানির ওপর নির্ভর করছে। তাদের রপ্তানির ৭০ শতাংশের বেশি আসে পণ্য থেকে। মধ্য এশিয়ার দেশগুলো সবচেয়ে বেশি পণ্য রপ্তানিনির্ভর এশিয়া অঞ্চলে। ২০১৮-১৯ সময়ে তাদের মোট রপ্তানির ৮৫ শতাংশের বেশি ছিল পণ্যদ্রব্য।



সাতদিনের সেরা