kalerkantho

বুধবার । ১১ কার্তিক ১৪২৮। ২৭ অক্টোবর ২০২১। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

এসএমই উদ্যোক্তাদের সহায়তা দিতে নতুন স্টক এক্সচেঞ্জ হবে চীনে

বাণিজ্য ডেস্ক   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এসএমই উদ্যোক্তাদের সহায়তা দিতে নতুন স্টক এক্সচেঞ্জ হবে চীনে

শুধু বড় কম্পানি নয়, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারাও যাতে উদ্ভাবনী কিছু করতে গিয়ে পুঁজির স্বল্পতায় না পড়ে এ জন্য নতুন উদ্যোগ নিচ্ছে চীন সরকার। রাজধানী বেইজিংয়ে হবে নতুন স্টক এক্সচেঞ্জ। সম্প্রতি এমন ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। চীনে বর্তমানে দুটি প্রধান স্টক এক্সচেঞ্জ রয়েছে। তার একটি সাংহাই, অন্যটি শেনঝেন স্টক এক্সচেঞ্জ। নতুন করে বেইজিংয়ে স্টক এক্সচেঞ্জ স্থাপন করার উদ্দেশ্য হিসেবে বলা হয়েছে, বিদেশি কম্পানির পাশাপাশি দেশীয় ক্ষুদ্র কম্পানিগুলোকে সুযোগ করে দেওয়াই এর লক্ষ্য।

শি গত বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মেলায় দেওয়া তাঁর বক্তৃতায় জানান, ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে সহায়তা দেওয়া হবে নতুন স্টক এক্সচেঞ্জের মূল উদ্দেশ্য। তিনি বলেন, ‘ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতের অনেক উদ্যোগ আছে, যারা উদ্ভাবনে ভূমিকা রাখছে। তাদের উদ্ভাবন ও উন্নয়ন যাতে আরো বেগবান হয় বেইজিং স্টক এক্সচেঞ্জের কাজ হবে সেসব ক্ষেত্রে সহায়তা দেওয়া।’ তবে কখন প্রতিষ্ঠা করা হবে এ ব্যাপারে আর বিস্তারিত তিনি বলেননি।

চীনে বিনোদন প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে অনেক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের ওপর যখন নিয়ন্ত্রণগত কঠোরতা আরোপ করা হচ্ছে তখন শি এমন ঘোষণা দিলেন। গত বৃহস্পতিবার বেইজিংয়ে একটি টিভি ট্যালেন্ট প্রতিযোগিতা সরকারের পক্ষ থেকে বাতিল করে দেওয়া হয়। শিশুদের ভিডিও গেমস খেলার সময় সর্বোচ্চ এক ঘণ্টায় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর বাজার নিয়ন্ত্রণ ও আর্থিক অনিয়মের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক অভিযানে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আলিবাবা, দিদিসহ আরো বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান। সে সময় ব্যবসায়ীদের নতুন এ আশার বাণী শোনালেন প্রেসিডেন্ট। ২০১৯ সালে সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জে নাসডাক স্টাইলের স্টার বোর্ড চালু করে চীন। যেখানে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকাভুক্তির সুযোগ করে দেওয়া হয়। সূত্র: এএফপি।