kalerkantho

রবিবার । ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮। ১ আগস্ট ২০২১। ২১ জিলহজ ১৪৪২

বিদেশি জাহাজে নিরাপত্তা প্রহরী নিচ্ছে না স্থানীয় শিপিং এজেন্টরা

মোংলা বন্দর

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোংলা বন্দরে আসা বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজে নিরাপত্তা প্রহরী (ওয়াচম্যান) নেওয়ার বাধ্যতামূলক নিয়ম থাকলেও সেই নিয়ম না মানার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় শিপিং এজেন্টদের বিরুদ্ধে। এতে পণ্য চুরি ও পাচারের আশঙ্কায় হুমকিতে রয়েছে বাণিজ্যিক জাহাজগুলো। বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (ট্রাফিক) মো. মোস্তফা কামাল বলেন, ‘শিপিং এজেন্টদের ওয়াচম্যান (নিরাপত্তা প্রহরী) দিতে বলা হলেও তারা কথা শোনে না।’ বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমরাও এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। তবে জাহাজে ওয়াচম্যান বুকিং দিতে যেসব শিপিং এজেন্ট গাফিলতি করছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বন্দর কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করা হয়েছে।’

অভিযোগে জানা যায়, সম্প্রতি মোংলা বন্দরে আসা বিদেশি জাহাজ এমভি বোলিছি, এমভি হাংজুয়ান স্প্রিট, এমভি জিহাই-৫২০, এমভি রেসুলেট বাই, এমভি সুমি-২, সুমি-৯ ও সুমি-৭সহ অনেক জাহাজেই ওয়াচম্যান (নিরাপত্তা প্রহরী) বুকিং দেয়নি পার্ক, টোগি, মেরিনার্স ট্রান্সপোর্ট ও ইস্ট কোস্ট শিপিং এজেন্টরা। এ বিষয়ে মেসার্স টোগি শিপিং এজেন্টের খুলনার অপারেশন বিভাগের দায়িত্বে থাকা মো. হোসেন ইমাম বলেন, ‘আমাদের একটি জাহাজের ক্ষেত্রে ওয়াচম্যান নেওয়া হয়নি। ভবিষ্যতে ওয়াচম্যান যাতে দেওয়া হয় সে জন্য জাহাজ মালিকদের চিঠি দেওয়া হয়েছে।’ দীর্ঘদিন ধরে জাহাজে ওয়াচম্যান নিয়োগ না দেওয়ার বিষয়টি জানা ছিল না স্বীকার করে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বলেন, ‘উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বন্দরের স্বার্থে জাহাজে শতভাগ ওয়াচম্যান বুকিং দিতে হবে। যারা এ নিয়ম মানবে না ওই সব শিপিং এজেন্টের লাইন্সেস বাতিল করা হবে।’



সাতদিনের সেরা