kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

২০২০-২১ অর্থবছরের এডিপি বাস্তবায়ন

২ মাসে ব্যয় করতে হবে লাখো কোটি টাকা

১০ মাসে আরএডিপির অর্ধেকও বাস্তবায়ন করা যায়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়নের ক্ষেত্রেও আগের অর্থবছরের চিত্রই দেখা যাচ্ছে। অর্থবছরের মাঝপথে এসে সংশোধনের মাধ্যমে সংশোধিত এডিপি (আরএডিপি) প্রণয়ন করেও বাস্তবায়ন বাড়ানো যায়নি। গত ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে (জুলাই থেকে এপ্রিল) আরএডিপি বাস্তবায়ন হয়েছিল ৪৯.১৩ শতাংশ। চলতি অর্থবছরের একই সময়ে এই হার ৪৯.০৯ শতাংশ। অর্থাৎ অর্থবছরের ১০ মাসে আরএডিপির অর্ধেকও বাস্তবায়ন করা যায়নি। বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) প্রতিবেদনে এমন চিত্র উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর আওতায় চলতি অর্থবছরে বরাদ্দ রয়েছে দুই লাখ ৯ হাজার ২৭২ কোটি টাকা। এর মধ্যে জুলাই থেকে এপ্রিল পর্যন্ত ১০ মাসে খরচ করা সম্ভব হয়েছে এক লাখ দুই হাজার ৭৩০ কোটি টাকা। সে হিসাবে এখনো উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর জন্য বরাদ্দ এক লাখ ছয় হাজার ৫৪২ কোটি টাকা অব্যয়িত রয়েছে। আরএডিপি শতভাগ বাস্তবায়ন করতে হলে মে ও জুন—এই দুই মাসের মধ্যেই ব্যয় করতে হবে বরাদ্দের অর্ধেকেরও বেশি এই অর্থ।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, এডিপি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এই চিত্র অনেকটাই স্বাভাবিক। অর্থবছরের শেষ দিকে এসেই বিল পরিশোধসহ অন্যান্য কাজে গতি আসে বেশি। ফলে শেষের দিকে এডিপি বাস্তবায়নের হারও বাড়ে। এ বছর ৮০ শতাংশ পর্যন্ত বাস্তবায়ন হতে পারে বলে মনে করছে পরিকল্পনা কমিশন সূত্র।

আইএমইডির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অর্থবছরের ১০ মাসে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো ব্যয় করতে পেরেছে এক লাখ দুই হাজার ৭৩০ কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিলের ৬৬ হাজার ৪৫৫ কোটি টাকা, বৈদেশিক সহায়তা থেকে পাওয়া ৩৩ হাজার ৫১৭ কোটি টাকা এবং স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব তহবিলের দুই হাজার ৭৫৮ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে। গত অর্থবছরের একই সময়ে ব্যয় হয়েছিল ৯৮ হাজার ৮৪০ কোটি টাকা।

এর আগের অর্থবছরগুলোর চিত্রেও খুব বেশি ব্যতিক্রম দেখা যায়নি। এর মধ্যে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে ৫৪.৯৪ শতাংশ বাস্তবায়ন হয়েছে উন্নয়ন কর্মসূচিতে বরাদ্দ দেওয়া অর্থ। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে ৫২.৪২ শতাংশ এবং ২০১৬-১৭ অর্থবছরের একই সময়ে সংশোধিত এডিপি বাস্তবায়ন হয়েছিল ৫৪.৫৬ শতাংশ।

আইএমইডি সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী বলেন, ‘চলতি অর্থবছরের শুরু থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত এডিপি বাস্তবায়নের গতি অনেক ধীর ছিল, কিন্তু আমরা গত অর্থবছরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েছি। যে কারণে এপ্রিল থেকে বাস্তবায়নের হার বাড়তে শুরু করেছে। গত অর্থবছরের চেয়ে শতাংশের দিক হতে সামান্য কম অগ্রগতি হলেও অর্থ ব্যয় কিন্তু বেড়েছে।’



সাতদিনের সেরা