kalerkantho

শুক্রবার । ৪ আষাঢ় ১৪২৮। ১৮ জুন ২০২১। ৬ জিলকদ ১৪৪২

বিশ্বের বৃহৎ তেল কম্পানির শেয়ার বিক্রি করছে সৌদি

আরামকোর শেয়ারের সম্ভাব্য ক্রেতা চীন

বাণিজ্য ডেস্ক   

৩ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বের বৃহৎ তেল কম্পানির শেয়ার বিক্রি করছে সৌদি

সৌদি আরামকোর তেল কারখানা

রাষ্ট্রীয় তেল কম্পানি আরামকোর একটি অংশ বিক্রয় করে দেওয়ার পথে হাঁটছে সৌদি আরব। সম্ভাব্য সেই ক্রেতা হতে পারে চীন। সম্প্রতি দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জানিয়েছেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় তেল কম্পানিটির ১ শতাংশ শেয়ার তাঁরা বিক্রি করে দেওয়ার কথা ভাবছেন। আরামকোর বাজার মূল্য অনুযায়ী এই পরিমাণ শেয়ারের মূল্য আসতে পারে প্রায় ১৯ বিলিয়ন ডলার।

সৌদি রাষ্ট্রীয় টিভিতে প্রচার করা এক সাক্ষাৎকারে বিন সালমান বলেন, ‘আরামকোর ১ শতাংশ শেয়ার বিক্রি নিয়ে বিশ্বের বৃহৎ একটি দেশের সঙ্গে আলোচনা চলছে। এটিকে আমরা গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি হিসেবে মনে করছি। কারণ এর মাধ্যমে বড় দেশে আরামকোর বিক্রি বাড়বে।’ সৌদি অশোধিত তেলের সবচেয়ে বড় ক্রেতা চীন। দেশটির সরকারি দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী ২০২০ সালে তারা সৌদি আরব থেকে যে পরিমাণ তেল ক্রয় করেছে তা অন্য কোনো দেশ থেকে ক্রয় করেনি।

এশিয়ায় আরামকোর আরো অনেক বড় ক্রেতা রয়েছে। গত মাসের এক প্রতিবেদনে কম্পানিটি জানিয়েছিল, তারা চীন, ভারত, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ায় অশোধিত তেল বিক্রি ও অপারেশনে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে। বার্নস্টিনের সিনিয়র বিশ্লেষক ওসওয়াল্ড ক্লিন্ট বলেন, ‘নিশ্চিতভাবেই আরামকোর শেয়ারের ক্রেতা হবে এশিয়ার যেকোনো একটি রাষ্ট্রীয় তেল কম্পানি। কারণ তাদের বেশির ভাগ তেল এই অঞ্চলে যায়।’

২০১৯ সালে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় আইপিওর মাধ্যমে সৌদি আরব আরামকোর প্রায় ১.৭ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করে দেয়। ওই আইপিওর মাধ্যমে ১০০ বিলিয়ন ডলার তোলার চিন্তা থাকলেও ২৯.৪ বিলিয়ন ডলার উত্তোলন করা সম্ভব হয়, যা ব্যয় করা হয় বিন সালমানের ‘ভিশন ২০৩০’ প্রকল্পের অর্থায়নে। ওই সময় আরামকো কম্পানিটির বাজার মূল্য ছিল ১.৭ ট্রিলিয়ন ডলার।

বিশ্লেষকরা বলছেন, করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে তেলের দাম পড়ে যাওয়ায় রাজস্ব সংকটে পড়েছে সৌদি আরব। এতে বিন সালমানের অর্থনৈতিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নেও ব্যাঘাত ঘটছে। এ অবস্থায় আরামকোর শেয়ার বিক্রির অর্থ দিয়ে সংকট কিছুটা হলেও মিটবে। সূত্র : সিএনএন মানি।



সাতদিনের সেরা