kalerkantho

শনিবার । ২৭ চৈত্র ১৪২৭। ১০ এপ্রিল ২০২১। ২৬ শাবান ১৪৪২

বীমা খাতে বিনিয়োগ বেড়েছে ২০ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কম্পানিগুলো শেয়ারবাজার, ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য খাতে ২০২০ সালে প্রায় ৪৮ হাজার ২০৮ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে, যা ২০১৯ সালের থেকে প্রায় আট হাজার ৫২ কোটি টাকা বা ২০.০৫ শতাংশ বেশি। বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে ২০১৯ সালে লাইফ ও নন-লাইফ বীমা খাতের মোট বিনিয়োগ ছিল ৪০ হাজার ১৫৬ কোটি টাকা। ২০২০ সালে লাইফ বীমা খাতের বিনিয়োগ ৩৬ হাজার ৫৪ কোটি টাকা। আর নন-লাইফ বীমা খাতের বিনিয়োগ ১২ হাজার ১৫৪ কোটি টাকা।

আইডিআরএর বীমাশিল্পের অগ্রগতি শীর্ষক প্রতিবেদন অনুসারে, ২০২০ সালে লাইফ বীমায় বিনিয়োগ বেড়েছে দুই হাজার ২২৩ কোটি টাকা বা ৬.৫৭ শতাংশ। বর্তমানে এই খাতের মোট বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৬ হাজার ৫৪ কোটি টাকা, যা ২০১৯ সালে ছিল ৩৩ হাজার ৮৩১ কোটি টাকা। সে বছর লাইফ বীমা খাতের প্রবৃদ্ধি ছিল ৮.৯৬ শতাংশ বা দুই হাজার ৭৮১ কোটি টাকা।

আবার ২০২০ সালে নন-লাইফ বীমার বিনিয়োগ বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ। ২০১৯ সালে যেখানে খাতটির বিনিয়োগ ছিল ছয় হাজার ৩২৫ কোটি টাকা। আর ২০২০ সালে তা বেড়ে ১২ হাজার ১৫৪ কোটি টাকা হয়েছে। অর্থাৎ ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে খাতটির বিনিয়োগ বেড়েছে পাঁচ হাজার ৮২৯ কোটি টাকা বা ৯২.১৬ শতাংশ। এর আগের বছরে এই প্রবৃদ্ধি ছিল ৫.৬১ শতাংশ। লাইফ বীমা খাতের বিনিয়োগের প্রায় ৫৫ শতাংশ সিকিউরিটিস, ২১ শতাংশ ব্যাংকে এফডিআর, ৮ শতাংশ জমি ও বাকিটা অন্যান্য বিভিন্ন খাতে কম্পানি বিনিয়োগ করেছে।

আইডিআরএ বিশ্বস্ত সূত্র কালের কণ্ঠকে বলেন, বেশ কয়েকটি কম্পানি অতিরিক্ত জমিজমা কিনেছে। এখন সেই জমিগুলো বিক্রি করতে পারছে না। মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে কম্পানিগুলো। এই কম্পানিগুলোর নাম অচিরেই প্রকাশ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রবিধানমালা অনুসারে দেশের লাইফ বীমা কম্পানির সম্পদের অন্যূন ৩০ শতাংশ সরকারি সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করতে হয় এবং নন-লাইফ বীমা কম্পানির সম্পদের অন্যূন ৭.৫০ শতাংশ সরকারি সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করতে হয়।

মন্তব্য