kalerkantho

বুধবার । ৮ বৈশাখ ১৪২৮। ২১ এপ্রিল ২০২১। ৮ রমজান ১৪৪২

করপোরেট কর কমানোর প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করপোরেট কর কমানোর প্রস্তাব

আসছে বাজেট ২০২১-২২ অর্থবছর থেকে পরবর্তী চার অর্থবছরে পর্যায়ক্রমে করপোরেট করহার আড়াই থেকে সাড়ে সাত শতাংশ পর্যন্ত কমানোর প্রস্তাব করেছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (বিসিসিআই)। গতকাল বুধবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলনকক্ষে প্রাক-বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রাহমান এই প্রস্তাব করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। এ সময় ঢাকা চেম্বার আয়কর, ভ্যাট ও শুল্কসংক্রান্ত ৩৭টি সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা এনবিআর চেয়ারম্যানের কাছে জমা দিয়েছে। আয়করসংক্রান্ত প্রস্তাবে ঢাকা চেম্বার দাবি করেছে, গবেষণায় দেখা যায়, করপোরেট করহার কমালে দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগ বাড়বে।

ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রাহমান আগামী বাজেটে করোনা-পরবর্তী ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিবেশ পুনরুদ্ধারকরণ, সহজ ও ব্যবসাবান্ধব আয়কর ব্যবস্থা, আয়কর ও মূল্য সংযোজন করের আওতা বৃদ্ধি, রপ্তানি বহুমুখীকরণ ও স্থানীয় শিল্পায়ন উৎসাহিত করা এবং বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণের ওপর জোরারোপের জন্য এনবিআরের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি প্রগ্রেসিভ হারে সব স্তর থেকে করপোরেট করহার আগামী ২০২১-২২, ২০২২-২৩ ও ২০২৩-২৪ অর্থবছরে পর্যায়ক্রমে ২.৫ শতাংশ, ৫ শতাংশ ও ৭.৫ শতাংশ হারে হ্রাস করা, করপোরেট ডিভিডেন্ডের আয়ের ওপর বিদ্যমান ২০ শতাংশের পরিবর্তে ১০ শতাংশ কর নির্ধারণ করার প্রস্তাব করেন, যাতে করে হ্রাসকৃত করপোরেট ট্যাক্স পুনর্বিনিয়োগ করা হলে, নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ কর আহরণের নতুন উৎস সৃষ্টি করা সম্ভব হবে।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি বলেন, এনবিআর থেকে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী টিনধারী করদাতার সংখ্যা ৫০ লাখ হলেও নিয়মিত ২৪ লাখ টিনধারী রিটার্ন দাখিল করে, এমতাবস্থায় করের আওতা বাড়ানোর লক্ষ্যে আয়কর প্রক্রিয়া সহজীকরণ ও সম্পূর্ণ অটোমেটেড অনলাইন ট্যাক্স রিটার্ন জমা দেওয়ার ব্যবস্থা করার প্রস্তাব করেন, যার ফলে দেশের কর প্রদান ব্যবস্থা সহজ হবে এবং ব্যবসার পরিবেশ সূচক উন্নয়নে এটি কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

তিনি সেবা খাতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রদানের পরও উৎসে মূসক কর্তন থেকে অব্যাহতির প্রদানের প্রস্তাব করেন পাশাপাশি কাঁচামাল ও ক্যাপিটাল মেশিনারিজ আমাদনি করার ক্ষেত্রে অগ্রিম কর বিলুপ্ত করার আহ্বান জানান।

মন্তব্য