kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল রিজার্ভ

রিজার্ভ দিয়ে ১১ মাসের আমদানি দায় মেটানো সম্ভব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল রিজার্ভ

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের ওপর ভর করে আবার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ নতুন মাইলফলক অতিক্রম করেছে। করোনার মধ্যেই এবার রিজার্ভ ছাড়াল ৪৪ বিলিয়ন বা চার হাজার ৪০০ কোটি ডলার, যা দেশের ইতিহাসে এযাবৎকালের সর্বোচ্চ। এই রিজার্ভ দিয়ে প্রায় ১১ মাসের আমদানি দায় মেটানো সম্ভব হবে। বর্তমানে দেশের এই রিজার্ভ পাকিস্তানের চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি। এ বছরের মধ্যেই রিজার্ভের পরিমাণ ৫০ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হওয়ার আশা করছে সরকার। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, রিজার্ভ বৃদ্ধির পেছনে রেমিট্যান্সের অবদান ছাড়াও রপ্তানি আয় ও বৈদেশিক ঋণ সহায়তা ভূমিকা রেখেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, গত বুধবার রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়নের ঘর অতিক্রম করে। ওই দিন শেষে রিজার্ভের পরিমাণ দাঁড়ায় ৪৪.০২ বিলিয়ন বা চার হাজার ৪০২ কোটি ডলার। এর আগে গত ৩০ ডিসেম্বর দেশের রিজার্ভ প্রথমবারের মতো ৪৩ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করে। তবে চলতি বছরের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে এশিয়ান ক্লিয়ারিং ইউনিয়নের (আকু) নভেম্বর-ডিসেম্বর মেয়াদের আমদানি বিল পরিশোধের পর তা ৪২ বিলিয়ন ডলারের নিচে নেমে এসেছিল। এ ছাড়া বিজয় দিবসের ৪৯ বছর পূর্তির আগের দিন রিজার্ভ ৪২ বিলিয়ন (চার হাজার ২০০ কোটি) ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছিল।

করোনার বছর হওয়ার পরও ২০২০ সালেই বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে ৯ বার নতুন মাইলফলক অতিক্রম হয়েছে। এক বছরে এত বেশি রেকর্ড গড়ার বিষয়টি এর আগে কখনোই হয়নি। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত বছরের ৩ জুন বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো রিজার্ভ ৩৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়। তিন সপ্তাহের ব্যবধানে ২৪ জুন সেই রিজার্ভ আরো বেড়ে ৩৫ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করে। এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই ৩০ জুন রিজার্ভ ৩৬ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়। এক মাস পর ২৮ জুলাই রিজার্ভ ৩৭ বিলিয়ন ডলারের ঘর অতিক্রম করে। এর তিন সপ্তাহ পর ১৭ আগস্ট রিজার্ভ ৩৮ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়। এরপর দুই সপ্তাহের ব্যবধানে ১ সেপ্টেম্বর তা ৩৯ বিলিয়নের ঘর অতিক্রম করে। এর পাঁচ সপ্তাহ পর ৭ অক্টোবর তা ৪০ বিলিয়ন ডলার এবং এর তিন সপ্তাহ পর গত ২৯ অক্টোবর তা ৪১ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করে। আর বিজয় দিবসের আগের দিন গত ১৫ ডিসেম্বর রিজার্ভ ৪২ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যায়।

২০১৯ সালের ১ জুলাই থেকে ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠালে ২ শতাংশ প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য