kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

করোনার মন্দা কাটছে

২০ লাখের বেশি ফ্রিজ বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা ওয়ালটনের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



২০ লাখের বেশি ফ্রিজ বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা ওয়ালটনের

করোনাভাইরাস মহামারির দুর্যোগ কাটিয়ে দেশের ফ্রিজ বাজারে এসেছে স্বাভাবিক গতি। সেই সঙ্গে দেশের ইলেকট্রনিকস জায়ান্ট ওয়ালটন ফ্রিজের চাহিদা ও বিক্রিও করোনাপূর্ববর্তী স্বাভাবিক ধারায় ফিরে আসে। যার পরিপ্রেক্ষিতে ফ্রিজ বিক্রিতে ওয়ালটন টার্গেট নিয়েছে-২০২১ হবে বাম্পার বিক্রির বছর। এ জন্য প্রতিষ্ঠানটি চলতি বছর ২০ লাখের বেশি ফ্রিজ বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে।

সূত্র মতে, বিগত বছরগুলোর মধ্যে ওয়ালটনের সবচেয়ে বেশি ফ্রিজ বিক্রি হয়েছিল ২০১৯-এ। সে বছর জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর সময়ে ২০ লাখেরও বেশি ফ্রিজ বিক্রি হয়েছিল ওয়ালটনের। ২০২১ সালে তার ওই বিক্রিকেও ছাড়িয়ে যাওয়ার টার্গেট নিয়েছে তারা। টার্গেট পূরণে গবেষণা ও উন্নয়ন (আরএনডি), ডিজাইন, উৎপাদন, মান নিয়ন্ত্রণ বা কিউসি, বিপণন, ব্র্যান্ডিং ও সেলস সব বিভাগে ওয়ালটন নিচ্ছে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি ও কর্মপরিকল্পনা।

ওয়ালটনের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইভা রিজওয়ানা নিলু বলেন, করোনায় গত বছর দেশের সব ব্র্যান্ডেরই ফ্রিজ বিক্রি কম হয়েছে। ২০২০ সালে ওয়ালটনের প্রায় ১৪ লাখ ফ্রিজ বিক্রি হলেও মার্কেট শেয়ার ছিল ৭০ শতাংশের বেশি, যা নিঃসন্দেহে সন্তোষজনক। এরই মধ্যে করোনার দুর্যোগ কাটিয়ে ওয়ালটন ফ্রিজের চাহিদা ও বিক্রিতে স্বাভাবিক গতি ফিরে এসেছে। চলতি বছর ২০১৯ সালের চেয়ে বেশি ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট নিয়েছি।

ওয়ালটনের আরেক ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এমদাদুল হক সরকার বলেন, ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট পূরণে বিপণন কৌশল ও ব্যাপক ব্র্যান্ডিংয়ের প্রতি বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। সে জন্য ২০২১ সালকে ‘ব্র্যান্ডিং ইয়ার’ বা বর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ২ জানুয়ারি থেকে সারা দেশে চলছে ওয়ালটন ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন ৯। এর আওতায় ওয়ালটন ফ্রিজ ক্রয়ে প্রতি ঘণ্টায় ফ্রি ফ্রিজসহ কোটি কোটি টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। চলতি বছরে ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট পূরণে ওয়ালটন সফল হবে বলে তিনি আশাবাদী।