kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১২ রজব ১৪৪২

চীনের ৯ প্রতিষ্ঠান ট্রাম্পের কালো তালিকায়

এবার শাওমির ওপর খড়্গ

বাণিজ্য ডেস্ক   

২০ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এবার শাওমির ওপর খড়্গ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিদায়ের প্রাক্কালে আরেকবার চড়াও হলেন চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে। দেশটির স্মার্টফোন জায়ান্ট শাওমিসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে সম্প্রতি কালো তালিকাভুক্ত করলেন। চীনা সামারিক বাহিনীর সঙ্গে সংযোগ থাকার অভিযোগে দেশটির ৯টি প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকায় আনার কথা জানিয়েছে আমেরিকান প্রশাসন। এর ফলে আমেরিকান কালো তালিকায় চীনের মোট ৪৪টি প্রতিষ্ঠান অন্তর্ভুক্ত হলো।

নতুন এই তালিকায় উল্লেখযোগ্য নাম স্মার্টফোনের বাজারে উদীয়মান শক্তি শাওমি এবং বিমান প্রস্তুতকারক সংস্থা কমার্শিয়াল এয়ারক্রাফট করপোরেশন অব চায়না (কোম্যাক)। এর ফলে গত বছরের নভেম্বর জারি করা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ অনুযায়ী এসব প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করতে পারবে না আমেরিকান লগ্নিকারীরা। এই খবরে গত শুক্রবার শাওমির শেয়ারদর ১০.৬ শতাংশ পড়ে যায়।

স্মার্টফোনের বাজারে গবেষণাপ্রতিষ্ঠান গার্টনারের জরিপ অনুযায়ী, ২০২০-২১ অর্থবছরের অক্টোবর-ডিসেম্বর প্রান্তিকে অ্যাপলকে সরিয়ে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোন কম্পানি হিসেবে উঠে এসেছিল শাওমি। কিন্তু এই নতুন নিষেধাজ্ঞার ফলে বিপাকে পড়ল উদীয়মান প্রতিষ্ঠানটি। যদিও চীনা সামারিক বাহিনীর সঙ্গে নিজেদের সংশ্লিষ্টতা অস্বীকার করেছে শাওমি।

আমেরিকান বাণিজ্যসচিব উইলবার রস জানিয়েছেন, দক্ষিণ চীন সাগরে বেইজিং প্রশাসন বেপরোয়া এবং একতরফাভাবে ক্রমে যুদ্ধের পরিবেশ তৈরি করছে। পাশাপাশি সে দেশের সেনার জন্য একাধিক সংস্থার সংবেদনশীল ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি রাইট এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তি যেভাবে সরকার গায়ের জোরে দখল করছে, তা মার্কিন জাতীয় সুরক্ষার পক্ষে তো বটেই, আন্তর্জাতিক বিশ্বের জন্যও চিন্তার কারণ হয়ে উঠছে; যা থেকে তাদের বিরত রাখতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হলো। এর আগে হুয়াওয়ে এবং চিপ প্রস্তুতকারক সংস্থা এসএমআইসির বিরুদ্ধেও একই ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল ট্রাম্প প্রশাসন। সূত্র : রয়টার্স, এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা