kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭। ২ মার্চ ২০২১। ১৭ রজব ১৪৪২

একনেকে উঠছে দশ প্রকল্প

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরীতে সবুজ কারখানা করছে বসুন্ধরা

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরীর সবুজ অংশে ৫০০ একর জুড়ে নির্মিত হচ্ছে বসুন্ধরা শিল্পাঞ্চল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরীতে সবুজ কারখানা করছে বসুন্ধরা

দেশের মাটিতে সবুজ শিল্পায়ন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন অথরিটি (বেজা)। আর এ লক্ষ্যে তারা বন্দরনগরী চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে এক হাজার একর জায়গাজুড়ে তৈরি করবে পরিবেশবান্ধব সবুজ কারখানা (গ্রিন ইন্ডাস্ট্রি)। এই কারখানাতেই সৃষ্টি হবে লাখখানেক মানুষের কর্মসংস্থান। সবুজ কারখানা স্থাপনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে যাচ্ছে দেশের বৃহত্তম শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ।

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরীর সবুজ অংশে ৫০০ একর জায়গাজুড়ে নির্মিত হচ্ছে বসুন্ধরা শিল্পাঞ্চল। এই শিল্পনগরীতে জমি বরাদ্দ পাওয়া কম্পানিগুলোর মধ্যে বসুন্ধরাই সর্বপ্রথম ভারী শিল্প স্থাপনের কাজ শুরু করেছে। এ লক্ষ্যে দ্রুত এগিয়ে চলেছে শিল্প-কারখানা স্থাপনের অবকাঠামো নির্মাণের কাজ। এরই মধ্যে প্রশাসনিক ভবনের বেইসমেন্টের কাজ প্রায় শেষ হয়েছে। সম্পন্ন হয়েছে ডরমিটরি ভবনের দোতলার ছাদ। আর বসুন্ধরা কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজের কাজ শুরু হবে আগামী মাসেই। সব ঠিক থাকলে আগামী বছরের ডিসেম্বরে উৎপাদন শুরু হবে এই কারখানায়।

বসুন্ধরা মাল্টি স্টিল মিলস নির্মাণকাজ উদ্বোধনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এটিরও ২০২১ সালের মধ্যে উৎপাদনে যাওয়ার কথা। শুধু বসুন্ধরা ইকোনমিক জোনেই প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অন্তত ৪০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। এ ছাড়া সবুজ শিল্পাঞ্চল অংশে এশিয়ান পেইন্ট, মডার্ন সিনটেক্সের শিল্প-কারখানার অবকাঠামোর নির্মাণযজ্ঞ চলছে দ্রুতগতিতে।

আগামীকাল মঙ্গলবার জাতীয় নির্বাহী পরিষদে (একনেকে) চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য তোলা হবে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর উন্নয়ন’ প্রকল্পটি। এ ছাড়া অন্য প্রকল্পগুলো হলো—পল্লী সড়কে গুরুত্বপূর্ণ সেতু নির্মাণ, ঢাকা এনভায়রনমেন্ট সাসটেইনেবল ওয়াটার সাপ্লাই প্রকল্প, টাঙ্গাইল জেলার ১০টি পৌরসভার অবকাঠামোগত উন্নয়ন, কাঁচপুর মেঘনা-গোমতী দ্বিতীয় সেতুর নির্মাণ, যানবাহন চালানো প্রশিক্ষণ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরী, ছহিউদ্দিন টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট, কিডনি হাসপাতাল স্থাপনা, বরেন্দ্র এলাকায় ঔষধি ফসল চাষাবাদ, নওগাঁ জেলায় কমিউনিটিভিত্তিক পানি সরবরাহ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরী (বিএসএমএসএন) সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এটিই হবে দেশের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক অঞ্চল, যার মোট আয়তন ৩০ হাজার একর। এতে কর্মসংস্থান হবে অন্তত ১৫ লাখ মানুষের।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এই প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে চার হাজার ৩৪৭ কোটি টাকা। প্রকল্পেগু বিশ্বব্যাংকের ঋণের পরিমাণ তিন হাজার ৯৬৭ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। প্রকল্পে সরকারি অর্থায়ন ৩৭৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। প্রকল্পটি ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২৫ সালের ডিসেম্বর মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হবে।

শিল্প নগরের জোন ২-এ এবং জোন ২-বিসহ অন্যান্য জোনে অবকাঠামো উন্নয়ন ও ইউটিলিটি সুবিধা সৃষ্টি করে অত্যাধুনিক অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার লক্ষ্যে মীরসরাই ও সোনাগাজী উপজেলায় প্রস্তাবিত প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। প্রকল্পগু এলাকায় অবকাঠামো উন্নয়নের মাধ্যমে বেসরকারি বিনিয়োগের উপযোগী পরিবেশ তৈরি করা হবে। পুরো প্রকল্পটি তিনটি অর্থনৈতিক অঞ্চলের আওতায় প্রায় ৩০টি জোনে বিভক্ত থাকবে।

শিল্পনগরের জোন-১ (মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল)-এর আওতাভুক্ত ৫৪৮ একর ভূমি উন্নয়নসহ অন্যান্য জোনের অবকাঠামো উন্নয়ন এবং ইউটিলিটি সেবা সৃষ্টি করা হবে। জোন ২-এ ৯৩৯ একর ও জোন ২-বিতে ৪৭৪ একরেরও উন্নয়ন করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা