kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইনের কাজ শুরু

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইনের কাজ শুরু

সোনাপুকুর মৌজায় গতকাল প্রকল্পের উদ্বোধন করেন বিপিসির চেয়ারম্যান (সচিব) মো. আবু বকর ছিদ্দীক

ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইন প্রকল্পের দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর অংশের ৫০ কিলোমিটার পাইপলাইন স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলার সোনাপুকুর মৌজায় প্রকল্পের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) চেয়ারম্যান (সচিব) মো. আবু বকর ছিদ্দীক। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন প্রকল্প পরিচালক (পিডি) মো. টিপু সুলতান। আরো বক্তব্য দেন, ভারতের নুমালীগড় রিফাইনারির কান্ট্রি ডিরেক্টর র‌্যাঙ্গ কৃষ্ণ কিসোঙ্গ, বিপিসি পরিচালক মেহেদী হাসান, দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাহাফুজুল আলম, নীলফামারীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মেহেদী হাসান ও পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম প্রামাণিক, পদ্মা অয়েল কম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মাসুদুর রহমান।

উল্লেখ্য, ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ প্রকল্পের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয় ২০১৮ সালের ৯ এপ্রিল। একই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

এই প্রকল্পে ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান নুমালীগড় রিফাইনারি লিমিটেড বাংলাদেশের পার্বতীপুর অয়েল হেড ডিপোতে পাইপলাইনের মাধ্যমে ভারত ১৫ বছর ডিজেল সরবরাহ করবে। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে প্রথম তিন বছর দুই লাখ মেট্রিক টন, পরবর্তী তিন বছর তিন লাখ মেট্রিক টন, এরপর চার বছর পাঁচ লাখ মেট্রিক টন ও অবশিষ্ট পাঁচ বছরে ১০ লাখ মেট্রিক টন তেল সরবরাহ করা হবে। ২০২০ সালের জুন থেকে শুরু হয়ে ২০২২ সালের মধ্যে পাইপলাইন স্থাপনের কাজ সমাপ্ত হওয়ার কথা রয়েছে। পাইপলাইন স্থাপনের জন্য বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভূমি অধিগ্রহণ ও হুকুম দখলের কাজ চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা