kalerkantho

মঙ্গলবার । ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৪ নভেম্বর ২০২০। ৮ রবিউস সানি ১৪৪২

৪২৮ কোটি টাকায় চার ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

এলজিইডির আওতায় রুরাল কানেকটিভিটি ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্টে পরামর্শক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকা মহানগরীর পানি সরবরাহ ব্যবস্থা আরো উন্নত করবে সরকার। এ জন্য পানির লাইন পুনর্বাসন করা হবে। এটিসহ মোট চারটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে ‘সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’। এতে ব্যয় হবে প্রায় ৪২৯ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি থেকে ব্যয় হবে ১৭৬ কোটি ১৪ লাখ ৫৯ হাজার ২৮৫ টাকা এবং এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) ঋণ দেবে ২৫২ কোটি ৮৪ লাখ ৩৪ হাজার ৯২৭ টাকা।

গতকাল বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে এক ভার্চুয়াল সভায় ক্রয় প্রস্তাবগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়। সভা শেষে অর্থমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল অনুমোদিত প্রকল্পের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

অতিরিক্ত সচিব ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল বলেন, ঢাকা ওয়াসার আওতাধীন ‘ঢাকা ওয়াটার সাপ্লাই নেটওয়ার্ক ইমপ্রুভমেন্ট’ প্রকল্পের আওতায় প্যাকেজ নম্বর ‘আইসিবি-০২.১২’ কাজের জন্য জার্মানির প্রতিষ্ঠান লাডউইং ফেইফার হোচান্দ টিয়েফবাউ জিএমবিএইচ অ্যান্ড কম্পানিকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১৬৪ কোটি ৯ লাখ টাকা। প্যাকেজের আওতায় মডস জোন-৭ এলাকায় মোট ১৬৩.৯৫ কিলোমিটার পানির লাইন পুনর্বাসন করে সাতটি ডিস্ট্রিক্ট মিটারড এরিয়া কমিশনিংসহ এক বছর পর্যন্ত নেটওয়ার্ক অপারেশন ও রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করা হবে।

তিনি বলেন, এলজিইডির আওতাধীন রুরাল কানেকটিভিটি ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্টে পরামর্শক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এতে যৌথভাবে কাজ পেয়েছে ডেভেলপমেন্ট ডিজাইন কনসালট্যান্টস লিমিটেড, বাংলাদেশ; জিআইটেক-আইজিআপি জিএমবি, জার্মানি; ডেভ কনসালট্যান্টস লিমিটেড, বাংলাদেশ; এবং রিসোর্স প্ল্যানিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্টস প্রাইভেট লিমিটেড। এতে ব্যয় হবে ৮৮ কোটি ৭৫ লাখ ৩০ হাজার ৫০৮ টাকা।

বৈঠকে ‘বুড়িগঙ্গা নদী পুনরুদ্ধার (নিউ ধলেশ্বরী-পুংলী-বংশাই-তুরাগ-বুড়িগঙ্গা রিভার সিস্টেম) (দ্বিতীয় সংশোধিত)’ প্রকল্পের পূর্ত কাজ সম্পাদনে যৌথভাবে ‘এলএ’ ও ‘টিটিএলএ’-কে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৫০ কোটি ৬২ লাখ টাকা।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, বৈঠকে ‘পালবাড়ী-দড়াটানা-মনিহার-মুড়ালী জাতীয় মহাসড়ক (এন-৭০৭)-এর মনিহার থেকে মুড়ালী পর্যন্ত চার লেনে উন্নীতকরণ’ প্রকল্পের প্যাকেজ নম্বর ডাব্লিউপি-০১-এর পূর্ত কাজ সম্পাদনে যৌথভাবে ‘আতাউর রহমান খান লিমিটেড’ ও ‘মাহাবুব ব্রাদার্স (প্রাইভেট) লিমিটেডকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১২৫ কোটি ৫২ লাখ টাকা।

মন্তব্য