kalerkantho

সোমবার । ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৩ নভেম্বর ২০২০। ৭ রবিউস সানি ১৪৪২

চট্টগ্রাম কাস্টমসে অকশনে অটোমেশন পদ্ধতি চালু

‘চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসে ই-অকশন কার্যক্রম জালিয়াতি বন্ধের এটা বড় উদ্যোগ।’ মো. মাসুদ সাদিক

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২৮ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রাম কাস্টমসে অকশনে অটোমেশন পদ্ধতি চালু

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের পণ্যের নিলাম প্রক্রিয়া এখন থেকে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে (ই-অকশন) অনুষ্ঠিত হবে। এত দিন নিলাম প্রক্রিয়া সনাতন পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হওয়ার বিভিন্ন ধরনের জটিলতা তৈরি হতো। নতুন পদ্ধতিতে কাস্টমসের কাজে গতি বাড়বে, জালিয়াতি বন্ধ হবে এবং স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে।

গতকাল মঙ্গলবার চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের ই-পেমেন্ট সম্পর্কিত সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ ও ই-অকশন কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সদস্য (মূসক নীতি) মো. মাসুদ সাদিক বলেছেন, জালিয়াতি বন্ধের এটা বড় উদ্যোগ। এর আগে বেনাপোল কাস্টমসে এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। চট্টগ্রাম কাস্টমসে এটি প্রথম উদ্যোগ।

চট্টগ্রাম কাস্টমসের অটোমেশন বা স্বয়ংক্রিয় শুল্কায়ন প্রক্রিয়া এখনো পুরোপুরি বাস্তবায়ন না হওয়ার কথা স্বীকার করে মাসুদ সাদিক নিজেদের নানা সীমাবদ্ধতার কথা বলেন।

তিনি বলেন, একজন সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট সারা দিনে ২০টি বিল অব এন্ট্রির মধ্যে একটিতে সমস্যা হলে সেটি বিভিন্ন স্থানে সমালোচনা করে বেড়ান। বাকি ১৯টি যে ভালোভাবে হয়েছে সেটি বলেন না। সিস্টেমে কিছু বিড়ম্বনা থাকে। অটোমেশন যে পর্যায়ে যাওয়ার কথা ছিল যায়নি। অটোমেশনের সব মডিউল চালু হলে কাজ দ্রুত হতো।

তিনি বলেন, ‘আমাদের বিল অব এন্ট্রি প্রতিনিয়ত বাড়ছে। আমি যখন কমিশনার ছিলাম ২০১২-১৫ পর্যন্ত। তখন প্রতিদিন চার হাজার বিল অব এন্ট্রি হতো। এখন সাত হাজার অতিক্রম করে গেছে। কিন্তু আমাদের অফিসারদের বসার জায়গা, ট্রেনিং, হার্ডওয়্যার সেভাবে বাড়েনি। কাজের দক্ষতা বাড়ায় অনিষ্পন্ন থাকছে না। এটা আরো ইমপ্রুভ করার সুযোগ আছে। সে লক্ষ্যে আমাদের ডিজিটাইজেশন। জনবল বাড়ানোর চেয়ে অটোমেশনে জোর দিচ্ছি।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের অতিরিক্ত কমিশনার ড. আবু নূর রাশেদ আহমেদ, যুগ্ম কমিশনার মো. তাফছির উদ্দিন ভূঞা, মুহাম্মদ মাহবুব হাসান, মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ, মোহাম্মদ বাপ্পী শাহরিয়ারসহ কাস্টম হাউসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে এম আকতার হোসেন, বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক আবদুল্লাহ জহিরসহ বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার ও বাণিজ্য সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য