kalerkantho

সোমবার । ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৩ নভেম্বর ২০২০। ৭ রবিউস সানি ১৪৪২

দুগ্ধ খামারিদের ৪% সুদে ঋণ দেবে রূপালী ব্যাংক

দুধ না ফেলে ঘি বানান, দুগ্ধ খাতে জাগুক প্রাণ—এই স্লোগানের দুগ্ধ চাষিদের পাশে দাঁড়ালাম। মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ এমডি ও সিইও, রূপালী ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুগ্ধ খামারিদের ৪% সুদে ঋণ দেবে রূপালী ব্যাংক

রূপালী ব্যাংকের এমডি ও সিইও মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ এবং মিল্ক ভিটার এমডি ও যুগ্ম সচিব অমর চান বণিক চুক্তিপত্র হস্তান্তর করেন

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত কৃষি প্রণোদনার সুফল প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে পৌঁছে দেওয়া, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দুগ্ধ খামারিদের সহায়তার লক্ষ্যে ৪ শতাংশ হারে ঋণ বিতরণ, দেশকে দুগ্ধ ও দুগ্ধজাতপণ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণকরণ এবং যুবক ও যুব-মহিলাদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে মিল্ক ভিটা ও রূপালী ব্যাংকের মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রূপালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এই চুক্তি সই হয়। ব্যাংকের এমডি ও সিইও মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ এবং মিল্ক ভিটার এমডি ও যুগ্ম সচিব অমর চান বণিক নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন। এ সময় রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন, এমপি এবং মিল্ক ভিটার চেয়ারম্যান শেখ নাদির হোসেন লিপু উপস্থিত ছিলেন।

মিল্ক ভিটার চেয়ারম্যান শেখ নাদির হোসেন লিপু বলেন, করোনা পরিস্থিতি শুরু হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি নির্দেশে কৃষকদের কাছ থেকে দুধ সংগ্রহ করে গুঁড়া দুধ প্রস্তুত করেছে মিল্ক ভিটা। এসব গুঁড়া দুধ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ত্রাণ মন্ত্রণালয় কিনে নিয়েছে। এর মাধ্যমে কৃষকরা এই দুর্যোগময় পরিস্থিতিতেও বেঁচে গেছেন। রূপালী ব্যাংকের এমডি ও সিইও মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ বলেন, “করোনাকালে যখন আমরা দেখলাম, খামারিরা দুধ বিক্রি করতে না পেরে রাস্তায় ফেলে দিচ্ছেন। তখন আমরা ‘করোনাকালে দুধ না ফেলে ঘি বানান, দুগ্ধ খাতে জাগুক প্রাণ’—এই স্লোগান সামনে রেখে আমরা দুগ্ধ চাষিদের পাশে দাঁড়ালাম।”

মন্তব্য