kalerkantho

বুধবার । ৫ কার্তিক ১৪২৭। ২১ অক্টোবর ২০২০। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বিকল্প বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে মূলধন সংরক্ষণে ছাড়

ব্যাংকের ঝুঁকিভার ১৫০ থেকে কমিয়ে ১০০ নির্ধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভেঞ্চার ক্যাপিটালসহ বিকল্প বিনিয়োগ উৎসাহিত করার জন্য ব্যাংকের মূলধন সংরক্ষণে ছাড় দিল বাংলাদেশ ব্যাংক। আগে বিকল্প বিনিয়োগে ১০০ টাকা বিনিয়োগ করলে তার ঝুঁকিভার ১৫০ টাকা ধরে ১০ শতাংশ বা ১৫ টাকা মূলধন রাখতে হতো। আর এখন ১০০ টাকা বিনিয়োগ করলে তার ঝুঁকিভার ১০০ টাকা ধরে ১০ শতাংশ বা ১০ টাকা মূলধন রাখতে হবে।

গত মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এসংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, নতুন এ সিদ্ধান্তের ফলে এ খাতে ব্যাংকগুলোর মূলধন সংরক্ষণের চাপ কমবে এবং বিকল্প বিনিয়োগে উৎসাহিত হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তা কালের কণ্ঠকে বলেন, বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের বিপরীতে ঝুঁকির তারতম্য অনুযায়ী ব্যাংকগুলোকে প্রয়োজনীয় মূলধন সংরক্ষণ করতে হয়। সাধারণত বেসরকারি খাতে বিনিয়োগে শতভাগ ঝুঁকি হিসেবে বিবেচনায় নিয়ে মূলধন সংরক্ষণ করতে হয়। আবার বেসরকারি খাতের মধ্যে একেবারে নতুন প্রকল্প যেমন-ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এগুলোতে ঝুঁকির মাত্রা বেশি নির্ধারণ করা হয়েছিল এবং এর বিপরীতে বেশি মূলধন সংরক্ষণ করতে হতো। এখন এটা কমানোর মানে হলো নতুন নতুন প্রকল্প বা যাঁরা নতুন উদ্যোক্তা তাঁদের যাতে ব্যাংকগুলো আগের তুলনায় বেশি ফেভার করে।

ব্যাংকগুলোর ঝুঁকিভিত্তিক মূলধন পর্যাপ্ততা নিয়ে ২০১৪ সালে নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই নীতিমালার আওতায় কোন খাতে বিনিয়োগে ঝুঁকিভার কী হারে হবে সেটি নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। এতে ভেঞ্চার ক্যাপিটালের বিপরীতে ঝুঁকিভার ১৫০ শতাংশ আরোপের নির্দেশনা দিয়েছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা