kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আলোচনায় বিএসইসি চেয়ারম্যান

স্বতন্ত্র পরিচালক ইস্যুতে কাজ করছে বিএসইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বতন্ত্র পরিচালক ইস্যুতে কাজ করছে বিএসইসি

ড. শিবলি রুবায়াত-উল ইসলাম

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, স্বতন্ত্র পরিচালকদের ভূমিকা বিস্তৃত ও গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশের অনেক সংস্থায় শুধু আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবদের স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়। তাঁরা তাঁদের যথাযথ ভূমিকা পালন করছেন না। বর্তমানে স্বতন্ত্র পরিচালক ইস্যুতে কাজ করছে বিএসইসি।

গত সোমবার ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) আয়োজিত ‘করপোরেট ওয়ার্ল্ডে ইন্ডিপেন্ডেন্ট ডিরেক্টরের ভূমিকা’ শীর্ষক সিপিডি সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ইনস্টিটিউটের সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট ও প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সানাউল্লাহর সভাপতিত্বে বিএসইসির কমিশনার ড. মিজানুর রহমান, আইসিএসবির প্রেসিডেন্ট মোজাফফর আহমেদ এফসিএস ও ইনস্টিটিউট অব কম্পানির সেক্রেটারি অব ইন্ডিয়ার (আইসিএসআই) সাবেক প্রেসিডেন্ট সি এস নিসার আহমদ বক্তব্য দেন। মূল প্রবন্ধের ওপর আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চেয়ারম্যান ইউনুসুর রহমান ও আইসিএসবির কাউন্সিল সদস্য আক্তার মতিন চৌধুরী এফসিএ।

মূল প্রবন্ধে সি এস নিসার আহমদ ইন্ডিপেন্ডেন্ট ডিরেক্টরের বিভিন্ন বিষয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও এশিয়ার গ্লোবাল ট্রেন্ডস সম্পর্কিত বিষয়ে আলোচনা করেন। তিনি মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশ ও ভারতের তুলনামূলক বিশ্লেষণ করেন। অ্যাংলো মার্কিন মডেল ও জাপানিদের করপোরেট প্রশাসনের মডেল নিয়েও আলোচনা করেন। বিএসইসি কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, ‘স্বতন্ত্র পরিচালকদের বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারদের স্বার্থ পরিচালনা করতে হবে। তাঁদের সমস্যা প্রশমিত করতে হবে। একটি সমস্যা রয়েছে যে বিপুলসংখ্যক শেয়ারহোল্ডারের কথা ব্যবস্থাপনা পর্ষদ পর্যন্ত পৌঁছতে পারে না। করপোরেট গভর্ন্যান্স কোড ভালোভাবে সংজ্ঞায়িত না। যুক্তরাজ্য, জাপান ও মার্কিন কোডগুলো পর্যালোচনা করে এটি উন্নত করতে কাজ করছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা