kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

পেঁয়াজ আমদানির ‘এলসি মার্জিন’ ন্যূনতম রাখার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



পেঁয়াজ আমদানির ‘এলসি মার্জিন’ ন্যূনতম রাখার নির্দেশ

পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতার পরিপ্রেক্ষিতে একের পর এক পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে এবার এই পণ্যটির আমদানি ঋণপত্র খোলার (এলসি) মার্জিন বা নগদ জমার পরিমাণ ‘ন্যূনতম পর্যায়ে’ রাখতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গতকাল বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এসংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিককালে আন্তর্জাতিক বাজারে পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির কারণে স্থানীয় বাজারেও পেঁয়াজের মূল্যে ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ প্রেক্ষাপটে বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক এবং মূল্য স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে পেঁয়াজ আমদানি ঋণপত্র স্থাপনের ক্ষেত্রে মার্জিনের হার ন্যূনতম পর্যায়ে রাখার জন্য ব্যাংকগুলোকে পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এর আগে গত ২ মার্চ জারি করা এক সার্কুলারে পেঁয়াজসহ কিছু ভোগ্য পণ্যের আমদানিতে ঋণপত্র খোলার মার্জিন ন্যূনতম পর্যায়ে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তার মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বলবৎ ছিল। নতুন সার্কুলারের মাধ্যমে এই মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা