kalerkantho

রবিবার। ৫ আশ্বিন ১৪২৭ । ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০। ২ সফর ১৪৪২

বহির্নোঙর কনটেইনার জাহাজশূন্য

সক্ষমতা বেড়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের

আসিফ সিদ্দিকী, চট্টগ্রাম   

১০ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সক্ষমতা বেড়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের

দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দর চট্টগ্রামে পণ্যবাহী কনটেইনার জাহাজ ভিড়ছে এক দিনেই। আগে একটি কনটেইনার জাহাজ বহির্নোঙরে পৌঁছে তিন দিন অপেক্ষায় থাকার পর বন্দর জেটিতে ভিড়তে পারত। এখন দিনেই জাহাজ জেটিতে ভিড়তে পারছে। গতকাল বৃহস্পতিবার এক দিনেই তিনটি কনটেইনার জাহাজ জেটিতে ভিড়েছে। এর মধ্যে একটি জাহাজ সরাসরি জেটিতে ভিড়েছে। অবস্থা এমন যে জেটিতে ঢোকার মতো কোনো কনটেইনার জাহাজ গতকাল বহির্নোঙরে ছিল না।

গত এপ্রিল মাসেও একটি কনটেইনার জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দর জেটিতে ভিড়ার জন্য সাত থেকে ১০ দিন বহির্নোঙরে অপেক্ষায় থাকতে হয়েছিল। এতে হাহাকার চলছিল বন্দর ব্যবহারকারীদের মধ্যে। পরিস্থিতির এতটাই অবনতি হয়েছিল যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছিল। এর পর থেকেই বন্দরের নানামুখী পদক্ষেপ এবং ব্যবহারকারীদের সম্মিলিত উদ্যোগে এই সুফল মিলল।

চট্টগ্রাম বন্দর পরিচালক (পরিবহন) এনামুল করিম এই সুফলের জন্য তিনটি কারণের কথা বলছেন। একটি হচ্ছে, বন্দরে আগের চেয়ে বড় জাহাজ একই সঙ্গে বেশি পণ্য নিয়ে ভিড়ছে। দ্বিতীয়ত, পণ্য উঠানামায় আধুনিক সব যন্ত্র যোগ হওয়ায় সক্ষমতা যেমন বেড়েছে, তেমনি কম সময়ে বেশি পণ্য উঠানামা করানো যাচ্ছে। তৃতীয়ত, অপ্রয়োজনীয় আমদানি কমে গেছে।

উল্লেখ্য, দেশের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য কেমন চলছে তার বড় একটি ধারণা পাওয়া যায় চট্টগ্রাম বন্দরের পণ্য উঠানামার চিত্র দিয়ে। অর্থনীতির লাইফলাইন চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর দিয়ে দেশের মোট আমদানির ৮২ শতাংশ আসে; আর রপ্তানি পণ্যের ৯১ শতাংশই যায় এই বন্দর দিয়ে।

জাহাজ পরিচালনাকারী চৌধুরী গ্রুপের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক সাহেদ সারোয়ার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বন্দরের ভালো ও সমন্বিত উদ্যোগের ফলে ইয়ার্ডে কনটেইনারজট কমেছে। ফলে একটি জাহাজ তিন দিনেই দ্রুত পণ্য নামিয়ে বন্দর ত্যাগ করতে পারছে। ফলে সঠিক সময়ে জাহাজ বন্দর ছেড়ে যচ্ছে বলে বিশ্বে বন্দরের সুনাম বাড়ছে। আমরা চাই, বন্দরের এই গতিশীলতা অক্ষুণ্ন থাকুক।’

চট্টগ্রাম চেম্বার সহসভাপতি তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘শুধু পণ্যের দাম বাড়াই নয়, একটি দেশের অর্থনীতির গতিশীলতা কতখানি, তা বন্দরের দক্ষতার ওপর নির্ভরশীল। চট্টগ্রাম বন্দরকে আরো গতিশীল করতে আধুনিক যন্ত্রপাতিতে সমৃদ্ধ করা এবং সক্ষমতা বাড়ানো জরুরি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা