kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭। ৭ আগস্ট  ২০২০। ১৬ জিলহজ ১৪৪১

শোক ও শ্রদ্ধা

‘আমি নিজেকে মালিক পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি না’

মাসুদ রুমী   

২ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘আমি নিজেকে মালিক পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি না’

লতিফুর রহমান জন্ম : ২৮ আগস্ট, ১৯৪৫ মৃত্যু : ০১ জুলাই, ২০২০

বাংলাদেশের ব্যবসা জগতে এক উজ্জ্বল নক্ষত্রের নাম লতিফুর রহমান। যাঁর উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প অনেক তরুণের কাছেই অনুকরণীয়। তাঁর মুখে সেসব গল্প শুনতে কার না ইচ্ছে হয়। এমনই এক অনুষ্ঠানে ট্রান্সকম গ্রুপের প্রয়াত চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান বলেছিলেন অনেক শিক্ষণীয় কথা।

তিনি বলেন, “প্রতিষ্ঠান পরিচালনার ক্ষেত্রে মালিক-শ্রমিকের ভেদাভেদ করা হলে প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। যিনি অর্থলগ্নি করবেন, তিনিই কেবল উদ্যোক্তা, এ ধারণা সঠিক নয়। প্রতিষ্ঠানে যাঁরা কাজ করেন, তাঁরা প্রত্যেকেই একেকজন উদ্যোক্তা। কারণ প্রতিদিনই তাঁরা গুরুত্বপূর্ণ কোনো বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছেন বা উদ্যোগ নিচ্ছেন এবং সেটির বাস্তবায়ন করছেন। এ কারণে নিজেকে আমি কখনো প্রতিষ্ঠানের মালিক মনে করি না। ‘মালিক’ শব্দটিও ব্যবহার করি না।”

রাজধানীর সোবহানবাগে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইনোভেশন অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার আয়োজিত ‘সফল উদ্যোক্তা’ শীর্ষক ধারাবাহিক ওই লোকবক্তৃতায় প্রধান বক্তা হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর প্রশ্নের জবাবে লতিফুর রহমান এসব কথা বলেন। এ সময় অনুষ্ঠানে হলভর্তি শিক্ষার্থী, শিক্ষকদের সামনে নিজের ব্যাবসায়িক সাফল্য ও উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প শোনান ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান। উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য করণীয়, ব্যাবসায়িক নীতি-নৈতিকতা, পরিকল্পনাসহ নানা বিষয়ে শিক্ষার্থীদের কৌতূহলী প্রশ্নেরও খোলামেলা জবাব দেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আপনি প্রথম আলো, ডেইলি স্টারসহ অনেক প্রতিষ্ঠানের মালিক, তা আগে কখনো জানতাম না। এসব প্রতিষ্ঠান পরিচালনার ক্ষেত্রে আপনার মূলনীতি কী?’ ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান জবাবে বলেন, ‘আমি নিজেকে মালিক পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি না। এসব প্রতিষ্ঠানে আমি যাইও না, এমনকি সেখানে আমার বসার কোনো কক্ষও নেই। ওখানে আমার যে সহকর্মীরা আছেন তাঁরাই প্রতিষ্ঠান চালান।’

তরুণদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে অসলো বিজনেস ফর পিস অ্যাওয়ার্ড পাওয়া এই বরেণ্য শিল্পপতি বলেছিলেন, ‘তোমাদের শুধু প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় শিক্ষিত হলেই চলবে না, নৈতিক শিক্ষায়ও শিক্ষিত হতে হবে। তা না হলে তোমাদের অর্জিত শিক্ষা এবং সার্টিফিকেট কোনো কাজে আসবে না।’

নাইজেরিয়ার এক শিক্ষার্থীর প্রশ্নের উত্তরে লতিফুর রহমান বলেন, ‘উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য নিজের সদিচ্ছাই যথেষ্ট। আইডিয়া তোমাদের চারপাশেই ছড়ানো রয়েছে। শুধু নিজের আগ্রহ আর পছন্দ বুঝে আইডিয়া নির্বাচন করো এবং কঠোর পরিশ্রম করো, সফল হবেই।’ তিনি আরো বলেন, একা একা সংগ্রাম করে কখনো সফল হওয়া যায় না। সফল হতে হলে পারস্পরিক সহযোগিতা লাগে। প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ কাজ আদায় করে নিতে হলে প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ কর্মীবান্ধব করতে হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা