kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

গ্রামীণফোনের শেয়ারে বড় দরপতন

উত্থানের পর পুঁজিবাজারে মূল্য সংশোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উত্থানের পর পুঁজিবাজারে মূল্য সংশোধন

তারল্য সরবরাহে প্রত্যেকটি ব্যাংকের বিশেষ তহবিল গঠনের একটানা উত্থানের পর এবার টানা পতনের মুখে পড়েছে পুঁজিবাজার। শেয়ার বিক্রির চাপে মূল্যসূচক ও লেনদেনে পতন ঘটছে। গতকাল সোমবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এক হাজার কোটি টাকার লেনদেন এখন ৬০০ কোটি টাকার ঘরে নেমেছে। এ নিয়ে টানা তিন দিন শেয়ার বিক্রির চাপে সূচক ও লেনদেন কমল।

এদিকে বকেয়া আদায় নিয়ে বিটিআরসির সঙ্গে গ্রামীণফোনের দ্বন্দ্ব নিরসনের পথে অগ্রসর হলে রবিবার কম্পানিটির শেয়ারে বড় উত্থান ঘটে। কিন্তু আগামী তিন মাসের মধ্যে আরো এক হাজার কোটি টাকা দিতে আদালত নির্দেশ দিলে শেয়ারের দামে পতন ঘটেছে। এক দিনেই কম্পানিটির শেয়ারের দাম ২৩.৬ টাকা বা ৭.৩৬ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। আগের দিন কেনার চাপ বাড়লে শেয়ারের দাম ২২ টাকার বেশি বৃদ্ধি পায়।

টানা দরপতন দেখা দিলেও বিনিয়োগকারীদের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের।

তাঁদের মতে, একটানা উত্থানে অনেক কম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। বিনিয়োগকারী মুনাফা তুলতে শেয়ার বিক্রি করায় নিম্নমুখী হয়েছে বাজার। সংশোধনের পর আবারও উত্থানে ফিরবে পুঁজিবাজার।

গতকাল সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৬০০ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৪৮ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৬৬৮ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। সেই হিসাবে সূচকের সঙ্গে লেনদেনও হ্রাস পেয়েছে। ডিএসইর প্রধান সূচক দাঁড়ায় চার হাজার ৬৫০ পয়েন্ট। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১২ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৭৩ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক ২০ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৫৭১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। দাম বেড়েছে ১০৩টির, দাম কমেছে ২০১টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টি কম্পানির শেয়ারের দাম।

শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন বাড়লেও কমেছে মূল্যসূচক। গতকাল সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৫ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৭০ পয়েন্ট। লেনদেন হওয়া ২৪৪টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৭৮টির, দাম কমেছে ১৩৪টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির শেয়ারের দাম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা