kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

চতুর্থ শিল্প বিপ্লব মোকাবিলায় প্রস্তুত সরকার : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বজুড়ে শুরু হওয়া চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সঙ্গে তাল মেলাতে সরকার প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, সারা বিশ্বেই এখন চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ঢেউ উঠেছে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবটিকস, অটোমেশন প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে। এসব প্রযুক্তির সঙ্গে নিজেদের খাপ খাওয়ানোর জন্য সরকার কাজ করছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী।

গতকাল রবিবার রাজধানীর শেরেবাংলানগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে উন্নয়ন সাংবাদিকদের সংগঠন ডেভেলপমেন্ট জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশের (ডিজেএফবি) অভিষেক অনুষ্ঠান উপলক্ষে ‘উন্নয়নে গণমাধ্যমের ভূমিকা’ শিরোনামের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরেই ২০৩০ সালের মধ্যে উন্নত দেশে যাওয়ার স্বপ্ন পূরণ হবে। ২০৪১-এর স্বপ্নও বাস্তবায়ন হবে। ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত হবে।’

তিনি বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যত চাহিদা শিক্ষা খাতে, সেগুলো আমরা মোকাবেলা করতে পারব।’ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য (সিনিয়র সচিব) শামসুল আলম, পরিকল্পনা বিভাগের সচিব নূরুল আমিন, আইএমইডি সচিব আবুল মনসুর মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহসহ অন্যরা।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, তৃণমূলে ৭০-৮০ শতাংশ মানুষ যারা বসবাস করে, তারা উন্নয়ন চায়। শুধু কথার উন্নয়ন নয়, একদম বাস্তব উন্নয়ন দেখতে চায়। সেতু-কালভার্ট তাড়াতাড়ি দেখতে চায় তারা। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ চায়। ভাতা বা অবলম্বন, পরিষ্কার পানির স্বপ্ন—এগুলোই তারা চায়। ডিজেএফবির সভাপতি এফ এইচ এম হুমায়ূন কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সংগঠনের কার্যনির্বাহী সদস্য সুশান্ত সিনহা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা