kalerkantho

বুধবার । ২৫ চৈত্র ১৪২৬। ৮ এপ্রিল ২০২০। ১৩ শাবান ১৪৪১

বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্টে উৎপাদন শুরু

বিটুমিন নিয়ে আক্ষেপের দিন শেষ : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিটুমিন নিয়ে আক্ষেপের দিন শেষ : অর্থমন্ত্রী

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ছবি : কালের কণ্ঠ

দেশের রাস্তায় যে বিটুমিন ব্যবহার করা হতো তা নিয়ে আক্ষেপ করতেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কারণ সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কের বিটুমিন নষ্ট হয়ে যেত। আমাদের দেশের আবহাওয়ার সঙ্গে মেলে এমন বিটুমিন পাওয়া যেত না। এখন আর এ নিয়ে চিন্তা করতে হবে না বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

তিনি বলেছেন, এখন আর বিদেশ থেকে বিটুমিন আমদানি করতে হবে না। কারণ বসুন্ধরা গ্রুপ বিটুমিন প্লান্ট তৈরি করেছে। চাহিদা মেটানোর পর তা বিদেশে রপ্তানি করা হবে। এটি বাংলাদেশের জন্য অনেক বড় অর্জন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

গতকাল শনিবার দুপুরে ঢাকার কেরানীগঞ্জের পানগাঁওয়ে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্ট প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। উদ্বোধনের পরই উৎপাদন শুরু করে প্লান্টটি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং অনুষ্ঠানের সভাপতি আহমেদ আকবর সোবহান, কো-চেয়ারম্যান সাদাত সোবহান, ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর ও তাঁর ছেলে আহমেদ ওয়ালিদ সোবহান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী বসুন্ধরা গ্রুপের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, আমি খুবই আনন্দিত আপনাদের সঙ্গে একত্রিত হতে পেরেছি। আর এর পেছনে মূল কাজটি করেছে বসুন্ধরা গ্রুপ। তাদের এ উদ্যোগের কারণে আমি এখানে আসতে পেরেছি। পিছিয়ে পড়া মানুষকে এগিয়ে নেওয়াসহ কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দেশে অবদান রাখছে বসুন্ধরা গ্রুপ।

তিনি বলেন, এই মাসটি ভাষাশহীদদের মাস। তাঁরা যে রক্ত দিয়েছেন তা বৃথা যায়নি। বাংলাদেশ আজ অনেক বেশি পরিচিত। সারা বিশ্ব আজ জানে ভাষার জন্য এ দেশের মানুষ রক্ত দিয়েছে। আরেকটি শুভক্ষণ আমাদের সামনে উপস্থিত। সেটি হলো জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী। শুধু এ দেশের মানুষ নয়, সারা বিশ্বের মানুষ জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী উদ্যাপনে অধীর আগ্রহী। জাতির পিতা নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন এ দেশের জন্য। তাঁর স্বপ্ন ছিল এ দেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দেবেন। তাঁর সেই কাজটি করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজকে যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তা জাতির পিতার স্বপ্নের সঙ্গে জড়িত। এ দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে হবে, পিছিয়ে পড়াদের খাবার দিতে হবে। দরিদ্র মানুষকে অন্ধকার থেকে আলোর সন্ধান দিতে হবে। এই কাজগুলো করার জন্য দেশের ব্যবসায়ী সমাজ সরকারের সহযোগিতায় কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী দেশের সব ব্যবসায়ী সমাজকে ব্যবসা করার সুযোগ সৃষ্টি করে দেবেন। এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এই ফসল।

বসুন্ধরা গ্রুপ একটি কারখানায় তিন লাখ মানুষের কর্মসংস্থান করবেন জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এখানে আসার আগে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের সঙ্গে আমার আলাপ হচ্ছিল। আমি উনাকে বলেছি, একটা বড় কারখানা প্রতিষ্ঠিত করতে হবে যেন তিন লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হয়। তিনি (বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান) আমায় আশ্বস্ত করেছেন চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে এমন একটা কারখানা গড়ে তোলা হবে। এটি আমাদের জন্য বড় সুসংবাদ।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা