kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

ব্যাংকিং খাত নেতিবাচক পরিস্থিতিতে : মুডিস

বাণিজ্য ডেস্ক   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যাংকিং খাত নেতিবাচক পরিস্থিতিতে : মুডিস

দেশের ব্যাংকগুলোর অ্যাসেট কোয়ালিটি বা প্রদানকৃত ঋণমানের আরো অবনতি হবে যদি দুর্বল গভর্ন্যান্স এবং ঋণ পুনরুদ্ধার পরিস্থিতির উন্নতি না হয়। আন্তর্জাতিক ঋণমান সংস্থা মুডিস ইনভেস্টরস সার্ভিস সম্প্রতি প্রকাশিত প্রতিবেদনে বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাত নিয়ে এ পূর্বাভাস দিয়েছে।

ঋণমানের ক্রমাগত অবনতির কারণ হিসেবে সংস্থা মনে করে, করপোরেট সুশাসনের অনুপস্থিতি এবং আইন ও নিয়ন্ত্রণগত দুর্বলতা। এসব কারণেই বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতের ভবিষ্যৎ নেতিবাচক বলে জানায় সংস্থাটি। দেশের ব্যাংকিং খাতের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানের সমালোচনা করে বলা হয়, মুডিসের পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানের সংযমের কারণে ঋণঝুঁকির বিষয়টিকে কম গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে এবং ঋণ পুনরুদ্ধারও ব্যাহত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বাংলাদেশের পাঁচটি ব্যাংকের বেসলাইন ক্রেডিট অ্যাসেসমেন্টস (বিসিএ) ও রেটিং অবনয়ন করা হয়েছে এবং আরো তিনটি ব্যাংকের রেটিং পুনর্ব্যক্ত করা হয়েছে।

সংস্থার মতে, বড় বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠানের হাতে উচ্চমাত্রায় ঋণ জমে আছে। এর ফলে ব্যাংকিং খাতে মন্দ ঋণ ও শ্রেণীকৃত ঋণের পরিমাণ বেড়ে চলেছে। বিশেষ করে ব্যবস্থাগতভাবেই এ বছর মন্দ ঋণের পরিমাণ ৩০ জুন পর্যন্ত বেড়ে হয়েছে ১১.৭ শতাংশ। যেখানে এক বছর আগের এ সময়ে মন্দ ঋণ ছিল ১০.৪ শতাংশ। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী শ্রেণীকৃত ঋণের পরিমাণ গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বেড়ে ১০ শতাংশের বেশি হয়েছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা