kalerkantho

বুধবার । ২২ জানুয়ারি ২০২০। ৮ মাঘ ১৪২৬। ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিশ্লেষণ

পথ হারাচ্ছে পুঁজিবাজার

মিনহাজ মান্নান ইমন
পরিচালক, ডিএসই, এমডি বিএলআই সিকিউরিটিজ

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পথ হারাচ্ছে পুঁজিবাজার

পুঁজিবাজারকে এগিয়ে নিতে স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যর্থতাও রয়েছে। বাজার যে স্থানে যাওয়ার কথা ছিল, সেটা হয়নি। মূলত স্টক এক্সচেঞ্জে সঠিক ও যোগ্য লোক, জনবলের অভাব থাকায় সেটা করা যায়নি। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন থেকে স্টেকহোল্ডাররা পুঁজিবাজারে ভালো কম্পানি আনার তাগিদ দিচ্ছে। দেশে ব্যবসা করা বহুজাতিক কম্পানিতে তালিকাভুক্ত করতে সবার কাছে আকুল আবেদনও জানিয়েছি। আজ পর্যন্ত সেটার বাস্তবায়ন হয়নি। আর এটি না হওয়ার পেছনে হয়তো কারণ রয়েছে। কোনো না কোনো কারণে তাঁদের পুঁজিবাজারে আকৃষ্ট করা যায়নি, আমরা ব্যর্থ হয়েছি।

বহুজাতিক কম্পানিকে কর ছাড় দিয়ে পুঁজিবাজারে আকৃষ্ট করলে সেটা বড় ধরনের প্রণোদনা। আর ভালো কম্পানিকে বাজারে আনতে এটাই হবে মৌলিক প্রণোদনা। কারণ প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানই ব্যবসার ক্ষেত্রে মুনাফা বা লাভকে গুরুত্ব দেয়। কাজেই বহুজাতিক কম্পানি কর ছাড় পেলে তারা পুঁজিবাজারে শেয়ার ছেড়ে আসতে আগ্রহী হবে। ইমনের মতে, দেশের পুঁজিবাজার একটি মাত্র পণ্য ইক্যুইটি নির্ভর। আর ইক্যুইটি নির্ভর এই পুঁজিবাজারে বিকাশের পথ রুদ্ধ। ইক্যুইটির ওপর ভিত্তি করে পুঁজিবাজার টিকে থাকতে পারে না। কিন্তু আমাদের দেশের পুঁজিবাজারে এমনটাই দেখা যাচ্ছে। আর বাজারের এই দুর্বলতা ক্রমেই ধরা পড়ছে। পুঁজিবাজার তার পথ হারিয়ে ফেলছে। আমি মনে করি ইক্যুইটির পাশাপাশি বন্ড মার্কেট, ট্রেজারি বিল ও অন্যান্য পণ্যকে বাজারে আনতে হবে। ভি-নেক্সট প্ল্যাটফর্মও তৈরি করা হয়েছে। এই ভি-নেক্সট প্ল্যাটফর্মে নতুন বিনিয়োগকারী ও অনেক ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা বৈদেশিক বিনিয়োগকারী খুঁজে পাবেন। আর এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ছোট ছোট কম্পানি স্মলক্যাপ বোর্ডের মাধ্যমে পুঁজিবাজারের মূল মার্কেটে আসবে। কাজেই আমরা এরই মধ্যে এক ধাপ এগিয়ে গেছি। আগামী ২০২০ সালের মধ্যে পুঁজিবাজার স্মলক্যাপ ও ভি-নেক্সট প্ল্যাটফর্মের সুফল পাবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা