kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

বড় উত্থানের পরদিনই পুঁজিবাজারে পতন

বিনিয়োগকারীদের ভূমিকা নিয়ে সন্দেহ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বন্ড ইস্যুর ২০০ কোটি টাকা পেয়ে শেয়ার কিনতে সক্রিয় হওয়ায় পুঁজিবাজারের মূল্যসূচকে বড় উত্থান ঘটে। বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ার দামও বাড়ে। কিন্তু এই উত্থান এক দিনের বেশি স্থায়ী থাকল না। পরদিন গতকাল বুধবার দিনভর শেয়ার বিক্রির চাপে সূচক কমে যায়। বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ার দামেও পতন ঘটেছে।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, ক্রমাগত পতনে বাজারে প্রাতিষ্ঠানিক ও বড় বড় বিনিয়োগকারী নিষ্ক্রিয় হওয়ায় গতিশীলতা ফিরছেই না। আর অব্যাহত শেয়ার বিক্রিতে মূল্যসূচক কমেই চলেছে, যাতে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা আশাহত হয়ে লোকসান হলেও শেয়ার ছেড়ে দিচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, আইসিবি সক্রিয় হওয়ায় বাজার উঠল; কিন্তু বুধবার এমন কী হলো যাতে বিক্রি বেড়ে গেল! একটি গোষ্ঠী বাজারকে নিম্নমুখী করে রাখতে নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছে। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা সূত্র জানায়, বাজারকে সাপোর্ট দিতে কমিশন নানামুখী সহায়তা ও তারল্য সংগ্রহ বাড়াতে কাজ করছে। তবে কিছু প্রাতিষ্ঠানিক বা বড় বিনিয়োগকারীর ভূমিকা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। তাদের লেনদেনের পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে। কেন তারা এই পতনের বাজারেও শেয়ার বিক্রি করছে। বাজার সাপোর্ট দিতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। কমিশন আইনগত সহায়তা দিতে পারে বাজার তুলতে। কমিশনের এক কর্মকর্তা নাম না প্রকাশের শর্তে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বাজারে শেয়ার বিক্রির মতো কোনো ঘটনা নেই, তারল্য প্রবাহে কিছুটা সমস্যা রয়েছে। তবুও কয়েকটি ব্রোকারেজ হাউস থেকে শেয়ার বিক্রি বেশি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা