kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সংসদ সদস্যদের গাড়ি আমদানিতে ৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার

সুবিধা পাচ্ছে পাল্ট্রি, মৎস্যসহ বেশ কিছু খাত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সংসদ সদস্যদের গাড়ি আমদানিতে ৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার

গাড়ি আমদানিতে ৫ শতাংশ অগ্রিম ভ্যাট বা মূসক দিতে হবে না সংসদ সদস্যদের। একই সঙ্গে দেশের পোল্ট্রি ও মৎস্য সম্পদের সুরক্ষায়ও ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে। সম্প্রতি অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে সংসদ সদস্যদের ব্যবহৃত গাড়ি আমদানিতে অগ্রিম ভ্যাট প্রত্যাহারের আদেশ দেওয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা, জাতিসংঘভুক্ত সংস্থা, দূতাবাসের আমদানীকৃত পণ্য, বিশেষ সুবিধাপ্রাপ্ত ব্যক্তির ব্যবহৃত পণ্য আমদানিতেও ভ্যাট প্রত্যাহারের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তবে ব্যবসায়ীরা ঢালাওভাবে যন্ত্রপাতি ও কাঁচামাল আমদানিতে অগ্রিম ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি জানালেও এ প্রজ্ঞাপনে তা আনা হয়নি। এতে আরো জানানো হয়, সোলার প্যানেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের আমদানীকৃত যন্ত্রপাতি, যন্ত্রাংশ ও উপকরণ, সুতা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের কৃত্রিম স্ট্যপেল ফাইবার, তাঁত বোর্ড কর্তৃক নিবন্ধিত ও সুপারিশকৃত তাঁতী সম্প্রদায়ের ব্যবহৃত পলিয়েস্টার ইয়ার্ন, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর কর্তৃক নিবন্ধিত পোল্ট্রি অথবা গবাদি পশু বা পোল্ট্রি লাইভ স্টক ও ডেইরি ফিড, মৎস্য অধিদপ্তরে নিবন্ধিত মৎস্য খাবারে ব্যবহৃত উপকরণ, আমদানীকৃত সমুদ্রগামী জাহাজ (৫০০০ ডাব্লিওটিএর বেশি) আমদানিতে অগ্রিম ভ্যাট পরিশোধের প্রয়োজন হবে না। বন্ড সুবিধাপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের নিডল ডিরেক্টর এবং অপর্যটক যাত্রীদের ব্যবহারের জন্য অল্প পরিমাণের পণ্য আমদানিতে অগ্রিম ভ্যাট পরিশোধ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

জাতীয় সংসদ সদস্যদের নিজেদের ব্যবহারের জন্য শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানির সুবিধা দিয়েছে সরকার। ভ্যাট আইন ১৯৯১ অনুযায়ী এ সুবিধার আওতায় সংসদ সদস্যদের কোনো ভ্যাট-ট্যাক্স-শুল্ক পরিশোধের প্রয়োজন হয় না। তবে চলতি অর্থবছরে নতুন ভ্যাট আইন ২০১২ বাস্তবায়ন হওয়ায় এ ক্ষেত্রে বিপত্তি বাধে। এ আইন অনুযায়ী সংসদ সদস্যদের নিজেদের ব্যবহারের গাড়ি আমদানিতে এটি (অ্যাডভান্স ট্যাক্স) বা অগ্রিম কর পরিশোধের আইনি বাধ্যবাধকতা চলে আসে। এ বিপত্তি দূর করতে এনবিআর থেকে ভ্যাট আইন ২০১২ আইন সংশোধন করে অগ্রিম কর প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এত দিন বাণিজ্যিকভাবে আমদানীকৃত ছয় হাজার ৫৬২টি পণ্যে অগ্রিম বাণিজ্যিক ভ্যাট আরোপ ছিল। উৎপাদন কাজে নিয়োজিতরা এ ক্ষেত্রে ছাড় পেতেন। উৎপাদনকাজে নিয়োজিতদের শিল্পের মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি ও শূন্য শুল্ক ধার্যকৃত কাঁচামাল আমদানিতে অগ্রিম কর দেওয়ার প্রয়োজন হতো না। চলতি বাজেটে কাঁচামালসহ অধিকাংশ আমদানি পণ্যের ওপর ৫ শতাংশ হারে অগ্রিম কর আরোপ করা হয়েছে। এত দিন উৎপাদনকারীরা নিম্নহারে ১ শতাংশ শুল্ক দিয়ে ৬৫৯ ধরনের যন্ত্রপাতি আমদানির সুযোগ পেয়েছে। ৫ শতাংশ অগ্রিম কর আরোপের বিধান কার্যকর হওয়ায় ১ শতাংশ শুল্ক যোগ হয়ে ৬ শতাংশ পরিশোধ করে এসব পণ্য আমদানি করতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা