kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

আখের বাম্পার ফলনে দ্বিগুণ লাভ গুনছে কৃষক

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আখের বাম্পার ফলনে দ্বিগুণ লাভ গুনছে কৃষক

চরফ্যাশনে ৩৯ হাজার ৫৫২ মেট্রিক টন আখ আবাদ হয়েছে

অনুকূল আবহাওয়ায় আখের বাম্পার ফলন হয়েছে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায়। তাতে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। তা ছাড়া বাজারে চাহিদা থাকায় ভালো দাম পেয়ে সন্তুষ্ট আখ চাষিরাও। খরচ গিয়েও দ্বিগুণ লাভ গুনছেন কৃষক।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা যায়, এ বছর আখের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। জেলার সাত উপজেলায় আখের আবাদ হয়েছে ৮২৪ হেক্টর জমিতে। এসব জমিতে সর্বমোট ৩৯ হাজার ৫৫২ মেট্রিক টন আখ আবাদ হয়েছে। হেক্টরপ্রতি উৎপাদন হয়েছে ৪৮ মেট্রিক টন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কৃষকের বিস্তীর্ণ ফসলের ক্ষেতে আখের সমারোহ। আখ কাটা, সংগ্রহ আর বিক্রি নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন চাষিরা। তবে পাইকারি বাজারে আখের দাম কম হলেও খুচরা বাজারে দাম অনেক বেশি।

আখ চাষি নুরুল ইসলাম বলেন, ১২ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করতে গিয়ে ১৩ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। ফলন বিগত বছরের চেয়ে অনেক ভালো। বাজারে ৩০ হাজার টাকার আখ বিক্রি হবে। দাম ভালো থাকায় দ্বিগুণ লাভ হচ্ছে। চরফ্যাশন পৌর ওয়ার্ডের আব্দুর রহমান বলেন, ১৬ শতাংশ জমিতে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। খরচ গিয়েও লাভ থাকবে প্রায় ৩৫-৪০ হাজার টাকা।

আখের আড়তদার মো. ইয়ামিন মিয়া বলেন, এ বছর আখের ফলন ভালো থাকায় বাজারে সরবরাহ বেশি। কেনাবেচাও ভালো হচ্ছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক বিনয় কৃষ্ণ দেবনাথ বলেন, ফলন ভালো হওয়ায় আখ আবাদে কৃষকদের আগ্রহ অনেক বেড়ে গেছে। এ বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে আবাদ অনেক বেশি হয়েছে। তাই চাষিরা অনেক খুশি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা