kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৪ রবিউস সানি     

লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস গতকাল বুধবারও দরপতনে শেষ হয়েছে দেশের পুঁজিবাজারের লেনদেন। এদিন প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমেছে। এ নিয়ে টানা তিন কার্যদিবস পুঁজিবাজারে সূচক কমল।

এর আগে সপ্তাহের প্রথম দুই কার্যদিবস গত রবি ও সোমবার সূচকের পতন হয়েছিল। তবে এদিন উভয় বাজারে লেনদেন বেড়েছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৮৬২ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৮ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১২৪ ও ১৭২৫ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কম্পানির মধ্যে ৬৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে, কমেছে ২৪১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টি কম্পানির শেয়ারের দর। ডিএসইতে ৩২০ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের কার্যদিবস থেকে ১৯ কোটি টাকা বেশি। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩০১ কোটি ৯৯ লাখ টাকার।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হওয়া শীর্ষ ১০টি কম্পানি হলো ন্যাশনাল টিউবস, স্কয়ার ফার্মা, সামিট পাওয়ার, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, সিলকো ফার্মা, সোনার বাংলা ইনস্যুরেন্স, ওয়াটা কেমিক্যাল, স্টাইলক্রাফট এবং গ্রামীণফোন।

অপর বাজার সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৭৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৮০৪ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৫১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ারের দর বেড়েছে ৫৯টির, কমেছে ১৫৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দর।

সিএসইতে ১৬ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে চার কোটি টাকা বেশি। আগের দিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১১ কোটি ৮১ লাখ টাকার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা