kalerkantho

‘চীনের বিআরআই উদ্যোগের সঙ্গে থাকবে বাংলাদেশ’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের স্বার্থে ও অবকাঠামো উন্নয়নের সুবিধায় বাংলাদেশ চীনের নেওয়া বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভে (বিআরআই) থাকবে বলে জানিয়েছেন সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী কর্নেল (অব.) মোহাম্মদ ফারুক খান এমপি। কারণ বিআরআই কর্মসূচির মাধ্যমে বাংলাদেশ নানাভাবে লাভবান হতে পারে।

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে বিশ্ব বাণিজ্যে ইন্দো-প্যাসিফিক, ইউরো-এশিয়া ও বিআরআইয়ের উদ্যোগ আছে। দেশ ও জনগণের উন্নয়নে আমরা এসব উদ্যোগের সঙ্গে যাব। তবে আমরা এসব নিয়ে দর-কষাকষি করব, এ সময় জাতীয় স্বার্থকে প্রাধান্য দেব।’

গতকাল বুধবার রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেনের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের (বিআইআইএসএস) সম্মেলন কক্ষে এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

‘বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ’ (বিআরআই)-ইন্দো প্যাসিফিক ইনিশিয়েটিভ : রিসাইপি ফর কনফ্লিক্ট অর কো-অপারেশন’ শীষর্ক এই সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ-চায়না চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (বিসিসিসিআই)।

বিআইআইএসএসের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) এ কে এম আব্দুর রহমানের সঞ্চালনায় এতে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রদূত মুন্সি ফয়েজ আহমেদ। এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন বিসিসিসিআইয়ের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহ মোহাম্মদ সুলতান উদ্দিন ইকবাল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফারুক খান বলেন, বাংলাদেশ সরকারের নীতি একেবারে পরিষ্কার। আর তা হলো দেশ ও জনগণের উন্নয়ন করা। এটা করতে যা করা প্রয়োজন বতর্মান সরকার তাই করছে। উন্নয়নের স্বার্থ বিবেচনার কথা উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘বিশ্বের কোন দেশ বিআরআই পছন্দ করল বা করল না, এটা দিয়ে আমাদের কিছু আসে-যায় না। কারণ আমরা মনে করি, বিআরআই বাংলাদেশের জন্য লাভজনক।’

মন্তব্য