kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিটিআরসির সঙ্গে টানাপড়েন

‘অন্যায্য’ নোটিশের জবাবে সঠিক ব্যবস্থা নেবে গ্রামীণফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অডিট পাওনা আদায়ে গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। লাইসেন্স বাতিল করতে কম্পানিটিকে কারণ দর্শানো নোটিশও দেওয়া হয়েছে।

তবে ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ সমাধান না করে এই নোটিশকে অন্যায্য আখ্যা দিয়ে কম্পানি, শেয়ারহোল্ডার ও গ্রাহকদের অধিকার রক্ষায় যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কম্পানিটি।

গতকাল রবিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানিয়েছে গ্রামীণফোন। গ্রামীণফোন জানায়, গত ৪ এপ্রিল ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি টাকা দাবি করে বিটিআরসি। যার মধ্যে বিটিআরসির আট হাজার ৪৯৪ কোটি টাকা ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চার হাজার ৮৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা।

গত ৫ সেপ্টেম্বর বিটিআরসি কারণ দর্শানো নোটিশ পাঠিয়েছে। এতে কেন টুজি লাইসেন্স রি-নিউ করা হবে আর থ্রিজি লাইসেন্স কেন বাতিল করা হবে না, সে বিষয়ে ৩০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

কারণ দর্শানো এই নোটিশকে অন্যায্য বলছে গ্রামীণফোন। কম্পানিটি জানায়, অডিট আপত্তির বিতর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ সমাধানে নিয়ন্ত্রক সংস্থা আমন্ত্রণকে প্রত্যাখ্যান করল। জবাব দিতে তারা এই নোটিশের পর্যালোচনা করবে। গ্রামীণফোন কর্তৃপক্ষ কম্পানি অধিকার, শেয়ারহোল্ডার ও গ্রাহক অধিকার রক্ষায় যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। পুরো বিষয় পর্যালোচনা করে কম্পানি যথাযথ সিদ্ধান্ত নেবে।

এদিকে বকেয়া পাওনা আদায় নিয়ে দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে টানাপড়েনে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত গ্রামীণফোনের শেয়ারের দামে ব্যাপক দরপতন হয়। গত পাঁচ মাসে কম্পানিটির শেয়ার গ্রাহকের শেয়ারের দাম প্রায় ১৬ হাজার কোটি টাকা হ্রাস পেয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা