kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আবেদন হারাচ্ছে ডলার

বিশ্বে প্রভাবশালী হবে ভার্চুয়াল মুদ্রা!

বাণিজ্য ডেস্ক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বে প্রভাবশালী হবে ভার্চুয়াল মুদ্রা!

বর্তমান সময়ে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠা ক্রিপ্টোকারেন্সিসহ বেশ কিছু ভার্চুয়াল মুদ্রা নিয়ে বিশ্বনেতারা উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছেন। কিন্তু ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের গভর্নর মার্ক কার্নে বলছেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, ফেসবুকের ‘লিবরা’র মতো ভার্চুয়াল মুদ্রা (অনলাইন মুদ্রা, বাহ্যিক লেনদেনে যার অস্তিত্ব নেই) বৈদেশিক মুদ্রাবাজারে কিং (রাজা) হিসেবে কোনো একদিন ডলারের স্থলাভিষিক্ত হয়ে উঠতে পারে।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, অনেক কারণেই ডলার বৈশ্বিক মুদ্রা হিসেবে তার আবেদন হারিয়ে ফেলছে। ফলে বর্তমানে কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর অনেকে ভার্চুয়াল মুদ্রার বিরোধিতা করলেও একসময় তারাই এটিকে সমর্থন দেবে। ১৯৪৪ সালে ব্রেটন উডস চুক্তির মাধ্যমে বিশ্বের কেন্দ্রীয় মুদ্রা হয়ে ওঠে ডলার। এটির বৈশ্বিক শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের পেছনে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক আধিপত্য মূল ভূমিকা রেখেছে। ওসট্রাম অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টের গবেষণা প্রধান ফিলিপ্পে ওয়েচার বলেন, প্রভাবশালী মুদ্রা সব সময় বিশ্বের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক শক্তির অধিকারী দেশটির হবে।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) হিসাব অনুযায়ী ২০১৯ সালের প্রথম প্রান্তিকে বৈশ্বিক বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের প্রায় ৬২ শতাংশ ছিল ডলার। দ্বিতীয় অবস্থানে ইউরোপীয় একক মুদ্রা ইউরো। যার অংশীদারত্ব ২০.২ শতাংশ। কিন্তু বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনৈতিক দেশ হওয়া সত্ত্বেও চীনের মুদ্রা ইউয়ানের অংশীদারত্ব মাত্র ২ শতাংশ। যদিও বিশ্ব অর্থনীতির নতুন মেরুকরণে ডলার তার আগের দ্যুতি ক্রমান্বয়ে হারিয়ে ফেলছে; কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক উত্থান-পতনে অন্য দেশগুলো প্রভাবিত হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েমিং রাজ্যে ব্যাংকারদের এক সম্মেলনে কার্নে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের যেকোনো পরিবর্তনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য প্রভাব পড়ে। এ ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো একটি নতুন ভার্চুয়াল মুদ্রাকে সমর্থন দিতে পারে। এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা