kalerkantho

মিউচুয়াল ফান্ডে বিক্রির চাপ বেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বছর শেষে পুনর্বিনিয়োগ ইউনিট লভ্যাংশ হিসেবে দেওয়ার পরিবর্তে নগদ লভ্যাংশ ঘোষণায় বাধ্যবাধকতা আরোপ করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ২০১৮ সালের হিসাব শেষে নগদ লভ্যাংশও ঘোষণা করেছে মিউচুয়াল ফান্ডের ট্রাস্টি। তবে আগের বছরের ব্যাপকভাবে লভ্যাংশ হ্রাস পেয়েছে।

গতকাল রবিবার মিউচুয়াল ফান্ডে বিক্রির চাপ বেশি থাকায় ইউনিটের দাম হ্রাস পেয়েছে। যদিও নগদ লভ্যাংশ ঘোষণার পর টানা কয়েক দিন মিউচুয়াল ফান্ড কিনতে আগ্রহ বাড়ে। তবে গতকাল ৭০ শতাংশ মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের দাম হ্রাস পেয়েছে। ডিএসইতে তালিকাভুক্ত ৩৭টি মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে ২৬টি ইউনিটের দাম হ্রাস পেয়েছে। মাত্র একটি ফান্ডের ইউনিটের দাম বেড়েছে। আর ১০টি ফান্ডের ইউনিটের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এদিকে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচক হ্রাস পেয়েছে। ডিএসইতে সূচক কমার সঙ্গে লেনদেনও কমেছে। আর সিএসইতে সূচক ও লেনদেন উভয়ই হ্রাস পেয়েছে। একই সঙ্গে দুই বাজারেই বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ার দামে পতন হয়েছে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৬০ শতাংশের আর সিএসইর ৬১ শতাংশ শেয়ার ও ইউনিটের দর কমেছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৬৮ কোটি ৯৮ লাখ টাকা আর সূচক কমেছে ১৩ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৭৮ কোটি ৯০ লাখ টাকা আর সূচক বেড়েছিল ১৩ পয়েন্ট।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা