kalerkantho

সোমবার । ২২ আষাঢ় ১৪২৭। ৬ জুলাই ২০২০। ১৪ জিলকদ  ১৪৪১

ড. রুবানা হক বললেন

শতভাগ পরিশোধ বেতন-বোনাস

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শতভাগ পোশাক কারখানার শ্রমিকরা ঈদ বোনাস এবং জুলাই মাসের বেতন পেয়েছে। তবে কিছু কারখানার শ্রমিকদের ওভারটাইমের সব টাকা পরিশোধ করা হয়নি বলে জানা গেছে। এ ক্ষেত্রে কারখানা মালিকদের সঙ্গে সমঝোতায় ঈদের পর পরই ওভারটাইম প্রদানের সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হক গতকাল শনিবার বিকেলে সাংবাদিকদের বলেন, এ খাতের ক্রান্তিকালের মধ্যেও সব কারখানার শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধ করেছেন মালিকরা। ছোট-বড় কোনো কারখানার কোনো শ্রমিককে বেতন-বোনাস না পেয়ে বাড়ি যেতে হয়নি। বিজিএমইএর তদারকিসহ নানা উদ্যোগের কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।

বিজিএমইএ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শেষ কর্মদিবসে শতভাগ পোশাক কারখানার শ্রমিকরা তাদের ঈদ বোনাস পেয়েছে। দুটি কারখানায় বোনাস নিয়ে সমস্যা ছিল। বিজিএমইএর মধ্যস্থতায় গতকাল এই কারখানার শ্রমিকরাও বোনাস বুঝে পেয়েছে। এবার মজুরি পরিশোধ নিয়ে ঝুঁকিতে থাকা কারখানা ছিল ১৩০টি। গতকাল পর্যন্ত সব কারখানার বোনাসও মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ইন্ডাস্ট্রিঅল বাংলাদেশ কাউন্সিলের মহাসচিব সালাহ উদ্দিন গতকাল বিকেলে বলেন, বেতন নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি। সব শ্রমিকই জুলাই মাসের বেতন নিয়েই বাড়ি যাচ্ছে। বোনাসও শতভাগ কারখানায় দেওয়া হয়েছে। তবে অনেক কারখানার মালিক আইনের মারপ্যাঁচে পরিমাণে বোনাস কম দিয়েছেন। শ্রম আইনে বলা আছে, একটি বেসিকের (মূল মজুরি) বেশি হবে না বোনাস। কিন্তু কম দেওয়া যাবে না সে কথা উল্লেখ নেই। এই সুযোগ নিয়ে অনেক কারখানার মালিকই শ্রমিকদের এক বেসিকের কম অর্থ দিয়েছেন বোনাস হিসেবে। এ ছাড়া ওভারটাইমের অর্থও অনেক কারখানায় পরিশোধ করা হয়নি।

মন্তব্য