kalerkantho

আইএমএফের এমডি নিয়ে নানা জল্পনা

এগিয়ে ইইউর প্রার্থী ক্রিস্টালিনা জার্জিয়েভা

বাণিজ্য ডেস্ক   

৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইএমএফের এমডি নিয়ে নানা জল্পনা

ক্রিস্টালিনা জার্জিয়েভা

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নীতিনির্ধারকরা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) এমডি প্রার্থী হিসেবে ক্রিস্টালিনা জার্জিয়েভাকে বেছে নিয়েছে। গত শুক্রবার তাঁকে প্রার্থী হিসেবে বেছে নিতে ইইউ সদস্য দেশগুলোর সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামত প্রাধান্য পায়। বুলগেরিয়ান এ অর্থনীতিবিদ বর্তমানে বিশ্বব্যাংকের সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মতে, অস্বাভাবিক কিছু না ঘটলে তিনিই হচ্ছেন আইএমএফের পরবর্তী প্রধান। কারণ গত ৭৫ বছরের ঐতিহ্য অনুযায়ী ইউরোপীয়রাই আইএমএফের নেতৃত্ব দিচ্ছে, আর বিশ্বব্যাংকের নেতৃত্ব আমেরিকার হাতে। এবারও তার ব্যত্যয় ঘটবে না। আইএমএফে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের ভোটিং ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি থাকায় এশিয়া বা অন্য কোনো অঞ্চল থেকে নেতৃত্ব আসার সুযোগ ক্ষীণ।

ক্রিস্টিন লাগার্দের পরে ক্রিস্টালিনা জার্জিয়েভা হবেন আইএমএফের প্রধান হিসেবে দ্বিতীয় নারী। বর্তমান এমডি ক্রিস্টিন লাগার্দের পদত্যাগ কার্যকর হবে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে। তিনি ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের (ইসিবি) প্রেসিডেন্ট হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন। ইইউর প্রার্থী বাছাই প্রক্রিয়ায় নেতৃত্ব দেওয়া ফরাসি অর্থমন্ত্রী ব্রুনো লে ম্যায়ারে এক টুইট বার্তায় বলেন, বুলগেরিয়ান এ অর্থনীতিবিদ এখন আইএমএফের এমডি (ব্যবস্থাপনা পরিচালক) পদে ইউরোপীয় প্রার্থী। বৈশ্বিক এ সংস্থাকে সফলতার সঙ্গে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য সব ধরনের যোগ্যতাই তাঁর রয়েছে। এ ঘোষণার পর এক টুইট বার্তায় জর্জিয়েভা জানান, ইইউ প্রার্থী হতে পেরে তিনি সম্মানিতবোধ করছেন। ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা ২০১৭ সাল থেকে বিশ্বব্যাংকের সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে ২০১০ সাল থেকে তিনি বুলগেরিয়ার ইইউ কমিশনার ছিলেন। এ ছাড়া ২০১৬ সালে জাতিসংঘের মহাসচিব পদে একজন প্রার্থীও ছিলেন। তবে জর্জিয়েভার বয়স চলতি মাসে ৬৬ বছরে পড়ছে। যদিও আইএমএফ এমডিকে অবশ্যই ৬৫ বছরের কম বয়সী হতে হয়। আগামী ৪ অক্টোবরের মধ্যে নতুন নেতৃত্ব বেছে নেবে আইএমএফ। রয়টার্স, এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা