kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পুঁজিবাজারে ১৪ মাসে সর্বোচ্চ লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পুঁজিবাজারে ১৪ মাসে সর্বোচ্চ লেনদেন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীর অংশগ্রহণ বাড়ছে। বাজারে ক্রেতা ও বিক্রেতার মিথস্ক্রিয়া বৃদ্ধি পাওয়ায় মূল্যসূচক ও লেনদেনেও গতিশীলতা এসেছে। ক্রমেই বাড়ছে লেনদেন ও সূচক।

গতকাল সোমবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে গত ১৪ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। অর্থাৎ ১৪ মাস আগে লেনদেনের পরিমাণ এক হাজার ১০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছিল। সোমবার ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও সূচক নিম্নমুখী হয়েছে। লেনদেন হয়েছে এক হাজার ১৪৬ কোটি ৩২ লাখ টাকা আর সূচক কমেছে প্রায় ২৪ পয়েন্ট। আগের দিন রবিবার লেনদেন হয়েছিল ৯৭৩ কোটি ৯৪ লাখ টাকা আর সূচক বেড়েছিল ৬২ পয়েন্ট।

নির্বাচন শেষ হওয়ার পর ঊর্ধ্বমুখী পুঁজিবাজার। ক্রমাগতভাবে সূচক ও লেনদেন বাড়ছে। কোনো দিন মুনাফা তুলে নিতে বিনিয়োগকারীর শেয়ার বিক্রি বাড়লে নিম্নমুখী হয়েছে বাজার। তবে লেনদেন গড়ে এক হাজার কোটি টাকার ওপরেই লেনদেন হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় গতকাল সোমবার লেনদেন হাজার কোটি টাকার ওপরেই লেনদেন হয়েছে। গতকালের লেনদেন গত ১৪ মাস বা ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর শেয়ার কেনার চাপ থাকলেও পরে হ্রাস পেয়েছে। লেনদেন শুরুতে পুঁজিবাজারে বড় উত্থান হলেও পরে কমেছে। এতে দেখা যায়, দিন শেষে ডিএসইর সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৮৩৬ পয়েন্ট। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৩২৬ পয়েন্ট আর ডিএসই-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ২৫ পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৪৫ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১২২টির, দাম কমেছে ২০২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২১ কম্পানির শেয়ারের দাম।

ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে অলিম্পিক অ্যাকসেসরিজ কম্পানির। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ৩৯ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনা পাওয়ারের লেনদেন হয়েছে ৩১ কোটি ৩২ লাখ টাকা। আর তৃতীয় স্থানে থাকা বিবিএস কেবলসের লেনদেন হয়েছে ৩০ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে—সিঙ্গার বিডি, জেএমআই সিরিঞ্জ, ব্র্যাক ব্যাংক, সাসা ডেনিমস, ইউনাইটেড পাওয়ার, অ্যাকটিভ ফাইন ও ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ৩৬ কোটি ২২ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৩৫ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৬৫ কোটি ২৩ লাখ টাকা। সোমবার লেনদেন হওয়া ২৭৫ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৯৪টির, দাম কমেছে ১৫৭টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪ কম্পানির শেয়ারের দাম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা