kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

ভ্যাট সম্মাননা পাচ্ছে ১৪৪ প্রতিষ্ঠান

কাল জাতীয় ভ্যাট দিবস

ফারজানা লাবনী   

৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



ভ্যাট সম্মাননা পাচ্ছে ১৪৪ প্রতিষ্ঠান

আগামীকাল সোমবার ১০ ডিসেম্বর জাতীয় মূসক (মূল্য সংযোজন কর) বা ভ্যাট দিবস। ভ্যাট রাজস্ব আদায়ের সবচেয়ে বড় খাত। দিবসটি উদ্‌যাপন উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। ২০১৬-১৭ অর্থবছরের সর্বোচ্চ ভ্যাট পরিশোধকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে জাতীয় পর্যায়ে ৯টি প্রতিষ্ঠানসহ সারা দেশের ১৪৪টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হবে।

১০ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআরের মূল কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহের উদ্বোধন করা হবে। এতে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এদিন বিকেল ৫টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ভ্যাট দিবস উপলক্ষে মতবিনিময়সভার আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারীদের হাতে সম্মাননা তুলে দেবেন।

এবারে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের সর্বোচ্চ ভ্যাট পরিশোধকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে জাতীয় পর্যায়ে ৯টি প্রতিষ্ঠানসহ সারা দেশের ১৪৪টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হবে। এ বিষয়ে সম্প্রতি এনবিআর দ্বিতীয় সচিব (মূসক-প্রশিক্ষণ ও পুরস্কার) স্বাক্ষরিত জারি করা পৃথক প্রজ্ঞাপনে জাতীয় পর্যায়ে উৎপাদন, সেবা ও ব্যবসা—এই তিন ক্যাটাগরিতে নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

এর মধ্যে রয়েছে উৎপাদন খাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিতাস গ্যাস ফিল্ড, হবিগঞ্জের হবিগঞ্জ গ্যাস ফিল্ড, কুমিল্লার মুরাদনগরে শ্রীকাইল গ্যাস ফিল্ড (বাপেক্স)। সেবা খাতে ঢাকার ওরিয়ন ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড (মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভার), উত্তরার টিইউভি এসইউডি বাংলাদেশ প্রাইভেট লিমিটেড ও সময় মিডিয়া লিমিটেড (সময় টেলিভিশন)। ব্যবসা খাতে গাজীপুরের গজারিয়ার এসসি জনসন প্রাইভেট লিমিটেড, ঢাকার বনানীর ওয়ার্টসিলা বাংলাদেশ লিমিটেড ও চট্টগ্রামের দক্ষিণ খুলশীর কেসিজে অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটস লিমিটেড।

সর্বোচ্চ ভ্যাট পরিশোধকারী হিসেবে জেলা পর্যায়ে উৎপাদন, সেবা ও ব্যবসা খাতে সম্মাননা পাওয়া ১৩৫ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে কক্সবাজারের সায়মন বিচ রিসোর্ট লিমিটেড, কিশোরগঞ্জের স্বপন কেমিক্যাল ওয়ার্কস, কুমিল্লার কিষোয়ান স্ন্যাকস লিমিটেড, মাতৃভাণ্ডার, ওয়ালটন প্লাজা। কুষ্টিয়ার মডার্ন প্লাইউড অ্যান্ড উড প্রসেসিং কম্পানি, ওয়ালটন প্লাজা, অশোধ দধি মিষ্টান্ন ভাণ্ডার। কুড়িগ্রামের মেসার্স জলিল বিড়ি ফ্যাক্টরি, টেরডেস হোমস ফাউন্ডেশন, ওয়ালটন প্লাজা। খাগড়াছড়ির মেসার্স রুবেল এন্টারপ্রাইজ, মেসার্স হোটেল নিলয়। খুলনার মেসার্স এসবি ফুড প্রডাক্টস, ক্রিস্টিয়ান সার্ভিস সোসাইটি, সেফ এন সেইভ। গাইবান্ধার এসকেএস ইন ও মেসার্স বাজাজ প্যালেস। গাজীপুরের এশিয়ান পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড। গোপালগঞ্জের মাল্টিবীজ পাইপ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, হোটেল জিমি ও ওয়ালটন প্লাজা।

চাঁদপুরের মোহাম্মদ আলী ফুড প্রডাক্টস, ওয়ান মিনিট ও ওয়ালটন প্লাজা। চাঁপাইনবাবগঞ্জের নিশান বিস্কুট অ্যান্ড ব্রেড ফ্যাক্টরি, আলাউদ্দিন হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট। চট্টগ্রামের চৌধুরী টি ওয়্যারহাউস, এএম চ্যানেল লিমিটেড। চুয়াডাঙ্গার এজটেক ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, খান বাজাজ সেন্টার। জামালপুরের মোহিনী বিড়ি ফ্যাক্টরি, মা মিষ্টান্ন ভাণ্ডার, মেসার্স লিলি মোটরস। জয়পুরহাটের টিভিএস কর্নার, ঝালকাঠির সাবিহা কেমিক্যাল ওয়ার্কস, সারেং ফার্নিচার। ঝিনাইদহের আকাশ ফোম ইন্ডাস্ট্রিজ, হামিদ ডিপার্টমেন্টাল স্টোর।

টাঙ্গাইলের স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস (প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং ইউনিট), গৌর ঘোষ দধি ও মিষ্টান্ন ভাণ্ডার, ওয়ালটন প্লাজা। যশোরের নিতা কম্পানি, আদ-দ্বীন প্রিন্টার্স, নিলয় মোটরস। ঠাকুরগাঁওয়ের সরদার প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ, গাউসিয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট। ঢাকার বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ, মিডিয়া এক্সিস, ইউনিমার্ট। দিনাজপুরের বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন, ওয়ালটন প্লাজা। নওগাঁর নওগাঁ প্যালেস, ওয়ালটন প্লাজা। নাটোরের সামির টোব্যাকো প্রাইভেট, মৌচাক মিষ্টি ভাণ্ডার, ওয়ালটন প্লাজা। নারায়ণগঞ্জের বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল কমপ্লেক্স লিমিটেড, তাজমহল চায়নিজ রেস্টুরেন্ট। নীলফামারীর সাকিব গুল কম্পানি, মেসার্স জামান অ্যান্ড সন্স, নেত্রকোনার আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরি, ওয়ালটন প্লাজা। নোয়াখালীর মেসার্স তানজিম প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং, মেসার্স বিশ্বনাথ কর্মকার অ্যান্ড আদার্স, ওয়ালটন প্লাজা।

নরসিংদীর গ্যাস ফিল্ড, পাবনার স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, প্যারাডাইস সুইটস, ওয়ালটন প্লাজা। পিরোজপুরের হোটেল রিল্যাক্স, মেসার্স বিএম মোটরস, পঞ্চগড়ে কাজী অ্যান্ড টি এস্টেট লিমিটেড, ওয়ালটন প্লাজা। পটুয়াখালীর সিকদার কেমিক্যাল ওয়ার্কস, কুয়াকাটা মোটরস, পর্যটন হলিডে হোমস। ফেনীর আবুল বিড়ি ফ্যাক্টরি, স্টার লাইন স্পেশাল, ওয়ালটন প্লাজা। ফরিদপুরের মেসার্স রাজ্জাক ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ, বেলপিয়াতু চায়নিজ রেস্টুরেন্ট, লিন্ডে বাংলাদেশ। বগুড়ার জেবি রিফাইনারি লিমিটেড, মেসার্স নর্থ বেঙ্গল ট্রেডিং। বাগেরহাটের আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরি, হোটেল পশুর, ওয়ালটন প্লাজা। বান্দরবানের হোটেল হিলভিউ আবাসিক, মেসার্স রানা এন্টারপ্রাইজ, বরগুনার মেসার্স হক কেমিক্যাল ওয়ার্কস, মেসার্স তাজ হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট, মেসার্স রাব্বানী স্টোর। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মেঘনা গ্যাস ফিল্ডস, হোটেল উজানভাটি, ওয়ালটন প্লাজা। বরিশালের মোহাম্মদী ইলেকট্রিক ওয়্যারস অ্যান্ড মাল্টি প্রডাক্টস, হোটেল গ্র্যান্ড পার্ক, এএম চ্যানেল লিমিটেড। ভোলার শাহবাজপুর গ্যাস ফিল্ড, ওয়ালটন প্লাজা, মাগুরার ভাই ভাই প্লাস্টিক, মেসার্স তামিম এন্টারপ্রাইজ, মেহেরপুর ও মৌলভীবাজারের ওয়ালটন প্লাজা। ময়মনসিংহে নূরানী জর্দা ফ্যাক্টরি, গোপাল পালের প্রসিদ্ধ মন্ডার দোকান, রংপুরের হরিণ বিড়ি ফ্যাক্টরি, বৈশাখী মিষ্টি মেলা, ওয়ালটন প্লাজা। রাজবাড়ীর বদরুন্নেসা কেমিক্যাল কম্পানি, লিটন মোটরস, রাজশাহীতে এসআর ইন্ডাস্ট্রি, হোটেল মুক্তা ইন্টারন্যাশনাল, ওয়ালটন প্লাজা। লক্ষ্মীপুরের সিটি লুব অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ, নিউ মোহাম্মদীয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট। লালমনিরহাটের আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরি, শেরপুরের চারু সুইটস, ওয়ালটন প্লাজা, শরীয়তপুরের মনিকা কেমিক্যাল কানেকশন, সাতক্ষীরার রনি প্লাইউড ইন্ডাস্ট্রিজ, মোজাফফর গার্ডেন অ্যান্ড রিসোর্ট, ওয়ালটন প্লাজা। সিরাজগঞ্জের রতন বিড়ি, হানিফ হাইওয়ে হোটেল অ্যান্ড মোটেল কমপ্লেক্স, সিরাজগঞ্জের ওয়ালটন প্লাজা, সিলেটের ফুলকলি ফুড প্রডাক্টস, পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্ট, মাহা। সুনামগঞ্জের ওয়ালটন প্লাজা, ফুলকলি, হবিগঞ্জের রশিদপুর কনডেনসেট ফ্র্র্যাকশনেশন প্লান্ট, হাইওয়ে ইন লিমিটেড ও শরীফ স্টোর।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা