kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

ভারতে সাইবার হামলা

দেশের ব্যাংকগুলোতে সতর্কতা জারি

ভারতের কসমস ব্যাংকে সাইবার হামলাকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনার নির্দেশ বাংলাদেশ ব্যাংকের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের ব্যাংকগুলোতে সতর্কতা জারি

ভারতের কসমস ব্যাংকে সাইবার হামলার ঘটনাটিকে সর্বাধিক গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রতিষ্ঠানটি দেশের ব্যাংকগুলোকে সাইবার ঝুঁকি মোকাবেলায় তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবস্থার নিরাপত্তা বাড়াতে ২০১৬ সালের ৩ মার্চ এবং ২০১৭ সালের ২৪ আগস্ট জারিকৃত নির্দেশনা পালনসহ সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের অনুরোধ জানিয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগ থেকে জারি করা এক নির্দেশনায় বলা হয়, সম্প্রতি বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা এবং গণমাধ্যমে পার্শ্ববর্তী দেশের ব্যাংকিংব্যবস্থা হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাতের খবর প্রকাশিত হয়েছে। এ ক্ষেত্রে সাইবার অপরাধীরা পেমেন্ট সিস্টেমস হ্যাক করে দেশের ভেতরে এবং দেশের বাইরে থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়। উদীয়মান অর্থনীতির দেশ হিসেবে বাংলাদেশও এ ধরনের সাইবার হ্যাকিংসংক্রান্ত নিরাপত্তা হুমকিতে রয়েছে।

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে নিউ ইয়র্ক ফেডে গচ্ছিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার হাতিয়ে নেয় একটি চক্র। ওই ঘটনার মাসখানেক পর পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগ থেকে সাইবার নিরাপত্তা বাড়ানোর বিষয়ে ব্যাংকগুলোকে একগুচ্ছ নির্দেশনা দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। ২০১৭ সালের ২৪ আগস্ট একই বিভাগ থেকে কার্ডভিত্তিক লেনদেন, অনলাইন ও ইন্টারনেট ব্যাংকিং, পয়েন্ট অব সেল (পিওএস), এটিএম ও পেমেন্ট গেটওয়েসহ সব ধরনের পেমেন্ট চ্যানেলের নিরাপত্তার বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এর পর থেকে দেশে বড় ধরনের সাইবার আক্রমণের ঘটনা না ঘটলেও কার্ড জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। গত মার্চে পাঁচটি ব্যাংকের কার্ড জালিয়াতির মাধ্যমে ২০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে গুলশানের একটি সুপারশপের সাবেক কর্মী। ওই ঘটনায় অভিযুক্তকে পরে আটক করতে সক্ষম হয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা।

তবে সম্প্রতি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের এক পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, খোদ বাংলাদেশ ব্যাংকের কতিপয় কম্পিউটারে এখনো ম্যালওয়্যার রয়েছে। ওই ম্যালওয়্যারগুলো থেকে চীন-জাপানসহ চারটি দেশের হ্যাকাররা অনবরত তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে।

মন্তব্য